শিরোনাম :

  • বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে অভিভাবককে গণপিটুনি : ৫শ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ সিরিজে শ্রীলঙ্কা দলে ফিরলেন চারজন প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন রাজবাড়ীতে ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু
ধর্ষকের ভিডিও দেখে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানালো শিশু
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
০৪ জুলাই, ২০১৯ ১৩:২৭:৩১
প্রিন্টঅ-অ+


ধর্ষক স্কুলশিক্ষক আশরাফুল আরিফকে গত ২৭ জুন গ্রেফতারের পর এবার আরেক বর্বর শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। শিশুদের যৌন হয়রানি ও যৌন নীপিড়নের দায়ে এবার গ্রেফতার করা হয়েছে এক মাদরাসা প্রধানকে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার মাহমুদপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ওই মাদরাসা শিক্ষকের নাম মাওলানা মো. আল আমিন। তিনি মাহমুদপুর এলাকার বাইতুল হুদা ক্যাডেট মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক। একইসঙ্গে তিনি ফতুল্লা এলাকার একটি মসজিদের ইমাম হিসেবেও দায়ত্বি পালন করে আসছেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

র‌্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলেপ উদ্দিন জানান, কিছুদিন আগে ধর্ষক আশরাফুল আরিফকে গ্রেফতারের ঘটনায় টেলিভিশনে প্রচারিত একটি সংবাদের ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকে গত দুইদিন আগে দেখে বাইতুল হুদা ক্যাডেট মাদরাসার তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী এবং তার মা। এ সময় হঠাৎ আলেপ উদ্দিনের ওয়ালে থাকা ভিডিওটি দেখে ওই ছাত্রী তার মাকে প্রশ্ন করে ‘আমাদের হুজুরকে র‌্যাব কেন গ্রেফতার করে না? আমাদের হুজুর আমাদের সঙ্গে এরকম খারাপ কাজ করে। ওই মাদরাসায় যেতে আমার আর ভালো লাগে না। আমি মাদরাসায় আর যাব না।’

পরে বিষয়টি ওই শিশুর মা র‌্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলেপ উদ্দিনকে জানান। নিশ্চিত হওয়ার জন্য আলেপ উদ্দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই শিশুর জবানবন্দি নেন এবং শিশুটিকে কৌশলে মাদরাসায় পাঠিয়ে ওই শিক্ষককে আটক করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত র‌্যাবের অভিযান চলছে।

এক ক্ষুদে বার্তায় র‌্যাবের জ্যেষ্ঠ এ কর্মকর্তা উল্লেখ করেছেন, ‘বর্বর ওই শিক্ষক দশের অধিক শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা ও যৌন হয়রানি করেছে।’



আমার বার্তা/ ৪ জুলাই ২০১৯/রিফাত


আরো পড়ুন