শিরোনাম :

  • ঢাকা-ম্যানচেস্টার-সিলেট-ঢাকা ফ্লাইট ৪ জানুয়ারি থেকে ঘর থেকে কোরিয়ান পপ তারকার লাশ উদ্ধার ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতা সিদ্দিক ২০ অক্টোবর থেকে চালু হচ্ছে মহাখালীর স্টার সিনেপ্লেক্স অক্সিজেনের সিলিন্ডার ছাড়াই পানির গভীরে ডুবুরি!
মামলা বাতিল ও রিভিশন আবেদনের সংখ্যা জানতে চান হাইকোর্ট
নিজস্ব প্রতিবেদক :
২৬ জুন, ২০১৯ ১৩:৪২:১৭
প্রিন্টঅ-অ+


২০১০ সাল পর্যন্ত হাইকোর্ট বিভাগে বিচারাধীন ফৌজদারি রিভিশন ও মামলা বাতিল চেয়ে করা আবেদনের তালিকা প্রস্তুত করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদের কাছে আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারকে এ প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এ দিন দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলার বিচার কার্যক্রম স্থগিত করে জারি করা রুল খারিজ করে রায় ঘোষণা করেন আদালত।

একইসঙ্গে মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ বুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দেয়া হয়। ৬০ কার্যদিবসের মধ্যে তাদের তদন্ত করতে হবে। তদন্ত শেষে ৯০ দিনের মধ্যে মামলাটির বিচার কার্যক্রম শেষ করতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ন ও ব্যারিস্টার মোতাহার হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ফরহাদ আহমেদ।

মামলার বিবরণে জানা যায়, সগিরা মোর্শেদ সালাম (৩৪) ১৯৮৯ সালের ২৫ জুলাই সিদ্ধেশ্বরীতে ছিনতাইকারীর গুলিতে মারা যান। এ ঘটনায় ওইদিনই রমনা থানায় অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে মামলা করেন নিহতের স্বামী সালাম চৌধুরী। ঘটনাস্থলে উপস্থিত রিকশাচালক দু’জনকে সনাক্ত করলেও অজ্ঞাত কারণে মিন্টু ওরফে মন্টু নামে এক আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় ডিবি পুলিশ। সাক্ষ্য চলাকালে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে ১৯৯১ সালের ২৩ মে মামলাটি অধিকতর তদন্তের আদেশ দেন ঢাকার একটি আদালত। এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন মারুফ রেজা। ওই বছরের ২ জুলাই হাইকোর্ট মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে দেন। এরপর দীর্ঘ ২৮ বছর মামলাটির ওপর স্থগিতাদেশ রয়েছে। সম্প্রতি রাষ্ট্রপক্ষ ওই স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের উদ্যোগ নেয়।



আমার বার্তা/২৬ জুন ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন