শিরোনাম :

  • রাজধানীর উত্তরখানে আগুনে একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় তিতলিবাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনরায়কে ঘিরে ঢাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় আজ
সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে শেয়ারবাজারে ব্যাপক দরপতন
১০ মে, ২০১৮ ১৭:৩২:৫৭
প্রিন্টঅ-অ+


সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচকের বড় দরপতন হয়েছে। এর মাধ্যমে টানা সাত কার্যদিবস পতনের মধ্যে থাকলো বাজার।

তালিকাভুক্ত ব্যাংক ও আর্থিক খাতের কোম্পানিগুলো থেকে বিনিয়োগকারীরা প্রত্যাশিত লভ্যাংশ না পাওয়ায় শেয়ারবাজারের এমন নেতিবাচক প্রভাব দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টরা।

ডিএসইর সাবেক পরিচালক শাকিল রিজভী বলেন, বাজারে উত্থান-পতন স্বাভাবিক বিষয়। তবে এখন কিছুটা টানা দরপতন দেখা দিয়েছে। এর কারণ হতে পারে ব্যাংক ও আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানগুলো বিনিয়োগকারীদের ভালো লভ্যাংশ দিতে পারেনি। তাছাড়া বাজারে এই মুহুর্তে কোন সমস্যা দেখছি না। আশাকরি বাজার শিগগিরই ঘুরে দাঁড়াবে।

বাজার পর্যালোচনা দেখা যায়, বৃহস্পতিবার মূল্য সূচকের পাশাপাশি ডিএসইতে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমেছে। তবে কিছুটা বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। বাজারটিতে ৮৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৯৭টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টির।

বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৫৬২ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৫৬০ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। সে হিসাবে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ২ কোটি ১২ লাখ টাকা।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৪০ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৫৮৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১১ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৭৩ পয়েন্টে অবস্থা করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩০৬ পয়েন্টে।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপয়ার্ডের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৭ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা বিবিএস কেবলসের ২৪ কোটি ১২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২২ কোটি ৮৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ড্রাগন সোয়েটার, বিএসআরএম, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, ডরিন পাওয়ার, ব্র্যাক ব্যাংক, ইফাদ অটোস এবং লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ৬১ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ৪২৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৭ কোটি ৫১ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২২৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭৯টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১২০টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির।



 



আমার বার্তা/১০ মে ২০১৮/জহির


আরো পড়ুন