শিরোনাম :

  • ৬৯ হাজার ৭৬৭ হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে অভিভাবককে গণপিটুনি : ৫শ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জলাবদ্ধতা থেকে রাতারাতি মুক্তি দেয়া সম্ভব নয় : স্থানীয় সরকারমন্ত্রীপ্রিয়া সাহার বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহ বলে মনে করেন না আইনমন্ত্রী
ভারতে মোদির নামে মসজিদ প্রতিষ্ঠা!
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
২৯ জুন, ২০১৯ ১৫:১২:১৬
প্রিন্টঅ-অ+


সাম্প্রতিক সময়ে মোদি এক আলোচিত নাম। বিভিন্ন কারণে ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আলোচিত। সম্প্রতি ভারতের ১৭০ বছরের পুরনো মোদি মসজিদ নিয়েও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে সেই মোদি।

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে জয় পেয়ে পুনরায় প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন নরেন্দ্র মোদি। দায়িত্ব গ্রহণের পরপর তার ভক্তরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দাবি করেন, জয় উপলক্ষ্যে বেঙ্গালুরে নিজ নামে একটি মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেছেন তিনি।

আসলে বেঙ্গালুরের যে মসজিদ ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মোদি ভক্তরা প্রচারণা চালাচ্ছেন, আসলে এ মসজিদ তা নয়, বরং ১৮৪৯ সালে তাসকের শহরের মোদি আবদুল গফুর নামে এক ব্যবসায়ী নিজ উদ্যোগে ওই মসজিদটি নির্মাণ করেন। যার বয়স এখন ১৭০ বছর। সেটি মোদি মসজিদ নামে পরিচিত।

দুই দশক ধরে গ্র্যান্ড মোদি মসজিদের ইমাম গোলাম রাব্বানি জানান, মোদি মসজিদ ১৭০ বছর পুরনো। আর প্রধানমন্ত্রী মোদির বয়স ৬৯ বছর বয়স। প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে এ মসজিদের কোনো সংযোগ নেই। বরং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার মাত্র।

এ ছাড়াও মোদি আব্দুল গফুর বেঙ্গালুরুতে আরো মোদি মসজিদ নামে আরো দু’টি মসজিদ নির্মাণ করেছেন। এছাড়াও বেঙ্গালুরুর ট্যানেরি এলাকায় ‘মোদি রোড’ নামে একটি রাস্তাও রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, গত ৪ বছর ধরে এ মসজিদটি নির্মাণ কাজ চলছে। মসজিদটি পুরনো হয়ে যাওয়ায় এটি ভেঙে পরিবর্তন ও পরিবর্ধন করে তৈরি করা হয়। নতুন করে সংস্কার করা এ মসজিদ গতমাসে সর্বসাধারণের ইবাদতের জন্য উন্মোক্ত করা হয়।

আর ঠিক ওই সময়টিতেই দ্বিতীয়বারের মতো দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন নরেন্দ্র মোদি। এর ফলেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার দলীয় ও ভক্তবৃন্দ মসজিদের কথা তুলে ধরেন। আর তাতেই ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয় যে, বেঙ্গালুরুতে নরেন্দ্র মোদি নিজ নামে ‘মোদি মসজিদ’ প্রতিষ্ঠা করে বিজয় উদযাপন করছেন।



আমার বার্তা/২৯ জুন ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন