শিরোনাম :

  • ঝিলপাড়ে শুধুই আহাজারি ১ হাজার ৯৪২ জন হাজি দেশে ফিরেছেন ভিএআর কেড়ে নিলো ম্যানসিটির জয় বিমানের ফিরতি হজ ফ্লাইট শেষ হবে ১৫ সেপ্টেম্বর টানা ১১ জয়ে রেকর্ডে ভাগ বসাল লিভারপুল
নির্বাহী ক্ষমতার অপব্যবহার করেছে সরকার : রাহুল গান্ধী
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
০৬ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:৩৬:২৩
প্রিন্টঅ-অ+


কাশ্মীর সংক্রান্ত ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মাধ্যমে ক্ষমতাসীন কেন্দ্রীয় সরকার নির্বাহী ক্ষমতার অপব্যবহার করেছে এবং এর ভয়াবহ পরণতি হবে বলে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন কংগ্রেসের সদ্যসাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী।

মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় রাহুল গান্ধী কশ্মীর সংক্রান্ত সংবিধানের বিশেষ অনুচ্ছেদ বাতিলের ঘটনাটিকে ওই অঞ্চলের মানুষের বিশেষ মর্যাদা হরণের অপচেষ্টা বলে অভিহিত করেছেন। গতকাল ভারত সরকার সংবিধানে প্রাপ্ত কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদাদানকারী ওই অনুচ্ছেদটি বাতিল করে।

রাহুল গান্ধী বলছেন, ‘একতরফাভাবে জম্মু-কাশ্মীরকে সম্পূর্ণরুপে ধ্বংস কিংবা বিচ্ছিন্ন করা, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের কারাগারে পাঠানো এবং সংবিধান লঙ্ঘন করার মাধ্যমে কোনোভাবেই জাতীয় সংহতি শক্তিশালী করা যায় না।’

রাহুল গান্ধী আরও বলেন, ‘এই জাতি তার মানুষের মধ্য থেকেই তৈরি হয়েছে কোনো ভুখন্ড নিয়ে চক্রান্তের মাধ্যমে নয়। নির্বাহী ক্ষমতার অপব্যবহার করার মাধ্যমে জাতীয় নিরাপত্তার ভয়াবহ পরিণতি তৈরি করবে।’ গতকাল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সংবিধানের ৩৭০ এবং ৩৫ (ক) অনুচ্ছেদ বাতিল করে। সংবিধানের ওই অনুচ্ছেদের কারণে জম্মু-কাশ্মীর বিশেষ মর্যাদা পেত। দেশটির সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব এবং কাশ্মীরকে দুইভাগ অর্থাৎ জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ করার বিল পাস হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই জল্পনা চলছিল কাশ্মীরের বিশেষ সুবিধা বাতিল করতে যাচ্ছে সরকার। গতকাল রাজ্যসভায় জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে ওই বিল ও প্রস্তাব তোলা হলে তাতে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটকে সমর্থন দেয় বহুজন সমাজ পার্টি (বিএসপি), বিজু জনতা দল (বিজেডি), তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি (টিআরএস), আম আদমি পার্টি (এএপি) এবং এআইএডিএমকে। তবে জোটসঙ্গী জনতা দল (ইউনাইটেড) তাতে সমর্থন দেয়নি।

আগামী মঙ্গলবার ভারতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভায় কাশ্মীর নিয়ে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল সংক্রান্ত প্রস্তাবটি উত্থাপন করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। তবে এতে প্রস্তাবটি পাস করাতে কোনো বেগ পেতে হবে না মোদির দলকে। কেননা লোকসভায় তাদের একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে।



আমার বার্তা/০৬ আগস্ট ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন