শিরোনাম :

  • খাদ্যসংকটে বানভাসি মানুষ বিচারকদের নিরাপত্তায় কী ব্যবস্থা : হাইকোর্ট সিভিল সার্ভিসের সামর্থ্য বহুগুণে বৃদ্ধি করেছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেভর বেইলিসকে দলে ভেড়াল কেকেআর পাটুয়াটুলীতে ধসে পড়া ভবন থেকে বাবা-ছেলের মরদেহ উদ্ধার
অশান্তি দূর করে ভালো থাকার উপায়
আমার বার্তা ডেস্ক :
১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:০১:১৫
প্রিন্টঅ-অ+


একটুতেই মাথা গরম হয়ে যায় আপনার? অথবা হঠাৎ কোনো দুর্ঘটনা মানসিকভাবে বিধ্বস্ত করে দিয়েছে? অন্যের অপমানজনক আচরণ মানতে কষ্ট হচ্ছে? এর পেছনে কিন্তু আপনার দৃষ্টিভঙ্গীও অনেকটা দায়ী। তাই এসব ঘটনা থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে চলতে হলে মনকে শান্ত রেখে নিজের কাজে মন দিতে হবে।

নিজের মনকে শান্ত রেখে কাজের মধ্যে ডুবে যেতে হলে প্রথমেই যা প্রয়োজন তা হল আপনার দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন। পদ্ধতিটা আহামরি কিছু না। নিয়মিত সজাগ থেকে কিছু অভ্যাস তৈরি করতে পারলেই আপনি আপনার দেখার পদ্ধতি পাল্টে ফেলতে পারেন আর বেরিয়ে আসতে পারেন যে কোনো অবাঞ্ছিত ঘটনা থেকে।

ইতিবাচক ভাবনা : চেষ্টা করুন সবসময় চেষ্টা করুন আপনার চারপাশে বা আপনাকে নিয়ে ঘটে চলা ঘটনাগুলোতে প্রথমেই জড়িয়ে না পড়ে তা নিয়ে কিছু সময় ভাবতে, সবদিক বিচার করে সেই ঘটনা সম্পর্কে নিজের মনে সিদ্ধান্ত নিন ও জানান। না ভেবে মন্তব্য বা সিদ্ধান্ত নেওয়ার ফল সুফল বয়ে আনে না। ভাবার সময় সবদিক বিচার করুন, নিজের মতো করে ভাবলে বা নিজের স্বার্থ দেখলে অনেক ক্ষেত্রেই কিন্তু পরিস্থিতি জটিল হয়ে ওঠে যা আপনার ক্ষতিকর।

ঘুরে দাড়ান : জীবনের কোনো পরিস্থিতিতেই মুষড়ে পড়বেন না, কোনো দুর্ঘটনায়ই হেরে যাবেন না। জীবনে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে যদি ভেবে থাকেন আপনার পক্ষে উঠে দাঁড়ানো সম্ভব নয়, সেটাও কিন্তু ভুল। যে কোনো ঘটনা আমাদের জীবনে ঘটে যাতে সেই ঘটনা থেকে আমরা শিক্ষা নিতে পারি। সেই শিক্ষাই আপনাকে উঠে দাঁড়াতে সাহায্য করবে। তাই যেকোনো ঘটনা ভালো হোক বা খারাপ তাদের আপনার জীবনে ঘটতে দিন, তাদের মাধ্যমেই আপনার শিক্ষা পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে।

প্রতিক্রিয়াশীল হবেন না : সবক্ষেত্রে সবস্থানে আপনার মতামতের গুরুত্ব নাও থাকতে পারে। তাই চেষ্টা করুন যেখানে গুরুত্ব নেই সেখানে মতামত না জানানোর। আপনার মতামত যদি কোনো পরিবর্তন ঘটাতে না পারে তবে সেক্ষেত্রে তার কিন্তু কোনো দামই রইল না। যে কোনো সামাজিক সমস্যার ক্ষেত্রেই একই কথা খাটে।

চেষ্টা করুন জীবনের সাফল্যের মুহূর্তগুলো সীমিতভাবে উদযাপনের যাতে করে কখনোই অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের সৃষ্টি না হয়। অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস আমাদের দেখার চোখকে কাপড় পরিয়ে রাখে। দূরে সরিয়ে রাখে বাস্তবকে আর আমরা হোঁচট খাই ঠিক তখনই।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষ পাল্টায়, পাল্টায় প্রযুক্তি ও পৃথিবী। তাই পাল্টাতে হবে দেখার চোখও, দেখার পদ্ধতি না পাল্টালে অনেকসময়ই আপনি আসল সত্যকে উপলব্ধি করতে পারবেন না, অপেক্ষাকৃত লঘু ঘটনাগুলোয় নিজেকে জড়িয়ে ফেলে নষ্ট হয়ে যাবে জীবনের অনেকটা সময়। তাই দৃষ্টিভঙ্গিতে পরিবর্তন জরুরি। আর তা সম্ভব জীবনে সবরকম পরিস্থিতিকে স্বাগত জানানোর মাধ্যমেই।



আমার বার্তা/১৭ এপ্রিল ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন