শিরোনাম :

  • রাজধানীর উত্তরখানে আগুনে একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় তিতলিবাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনরায়কে ঘিরে ঢাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় আজ
জঙ্গি বিষয়ে নারীদের সচেতন হতে হবে : মতিয়া চৌধুরী
নিজস্ব প্রতিবেদক :
২৩ মে, ২০১৯ ১৫:২৫:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+


আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, ‘বর্তমানে সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো জঙ্গি। এ বিষয়ে গ্রামের নারীদের সচেতন করতে হবে। গ্রামের নারীরা এখনও অন্ধকারের মধ্যে আছে। তাদের ভেতর খেকে অন্ধকার দূর করতে হবে। অনেক সময় নেতাকর্মীরা অসৎ পথে অর্থ উপার্জনের পথ খোঁজে। এগুলো করলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে না।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও ‘নারীর অগ্রযাত্রায় সমৃদ্ধ বাংলাদেশ শেখ হাসিনার অবদান’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব বলেন। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার সরকার বাবার নামের পাশাপাশি মায়ের নাম অন্তর্ভুক্ত করার জন্য আদেশ জারি করেন। এরপর ক্ষমতা পরিবর্তন হওয়ার কারণে বিষয়টি বেশিদূর এগুইনি। এখন এসে আদালত এ বিষয়ে রায় দিয়েছেন। ফলে শেখ হাসিনার সে উদ্যোগটি এখন পুরোপুরি সফল হবে।’

তিনি বলেন, ‘নারীরা কোনো করুণা নয়, অনুগ্রহ নয় সরাসরি নির্বাচন করে যেন জনপ্রতিনিধি হতে পারে সে ব্যবস্থা শেখ হাসিনাই করেছেন। বেগম মুজিবের কারণেই শেখ মুজিব বঙ্গবন্ধু হতে পেরেছিলেন। আর তাদের কারণেই আজ শেখ হাসিনা এবং শেখ হাসিনার কারণেই আজ আমরা সজীব ওয়াজেদ জয় এবং সায়মা ওয়াজেদ পুতুলকে পেয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ‘তারা কিন্তু হাওয়া ভবন, খাওয়া ভবন নিয়ে চিন্তা করে না। মা যেভাবে ছেলে-মেয়েকে গড়ে তোলে সেভাবেই তারা গড়ে তুলেছিলেন। তারা কিন্তু কোনো কর্পোরেট হাউস তৈরি করেনি। তাদের এসব আচরণ থেকে আপনাদের শিক্ষা নিতে হবে।’

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, ‘২০০১ সালে বিএনপি জামাত ক্ষমতায় আসার পর কৃষিকে ধ্বংস করার জন্য কৃষি মন্ত্রণালয়, সমাজকে নষ্ট করার জন্য সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং শ্রমিকদের ধ্বংস করার জন্য শ্রম মন্ত্রণালয় নেয়। এরপর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে এসব মন্ত্রণালয়কে গোছাতে অনেক বেগ পেতে হয়েছে।’

সেমিনারে সুলতানা সফির সভাপতিত্ব আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সুজিত রায় নন্দী, শিক্ষাবিদ শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী, সাবেক নারী ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, আওয়ামী লীগের নেত্রী জাকিয়া হাসান, ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, আওয়ামী লীগের নেত্রী সাহেদা তারেক দিপ্তী, সাবেরা বেগম প্রমুখ।



আমার বার্তা/২৩ মে ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন