শিরোনাম :

  • ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালে ১৭০৬ ডেঙ্গু রোগী দেশে ফিরেছেন ৭৯৮২ হাজি আরও এক বাংলাদেশি হাজির মৃত্যু নিষিদ্ধই হলেন শাহজাদ জঙ্গি সংগঠন ‘আল্লাহ’র দলের ভারপ্রাপ্ত আমিরসহ আটক ৪
আরও বাড়বে তাপমাত্রা, জুনের মাঝামাঝিই আসছে বর্ষা
নিজস্ব প্রতিবেদক :
০৮ জুন, ২০১৯ ১৩:১০:০৪
প্রিন্টঅ-অ+


লঘুচাপের প্রভাব কমে যাওয়ায় বৃষ্টির পরিমাণ কমে যাচ্ছে। আগামী আরও দু’একদিন থেমে থেমে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হবে। আর বৃষ্টি কম হওয়ায় তাপমাত্রাও ক্রমান্বয়ে বাড়বে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আর জুনের প্রথম সপ্তাহে বর্ষাকালে বৃষ্টি নামানো দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশে প্রবেশের পূর্বাভাস থাকলেও তা হয়নি। জুনের মাঝামাঝি সময়েই বাংলাদেশের ভূখণ্ডে মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল খুলনায় ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শুক্রবার ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকলেও শনিবার তা হয়েছে ২৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হচ্ছে তেঁতুলিয়ায় ২২ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক বলেন, ‘এখন দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টি আছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণাঞ্চলের খেপুপাড়ায় ৪৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, পটুয়াখালী, কক্সবাজারে হয়েছে ৩০ মিলিমিটার, ভোলায় বৃষ্টি হয়েছে ২৩ মিলিমিটার।’

আগামী ২৪ ঘণ্টায় দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘লঘুচাপের প্রভাবে এখন বৃষ্টিটা হচ্ছে। লঘুচাপের প্রভাব কমতে শুরু করেছে। দু’একদিনের মধ্যে বৃষ্টি কমে যাবে।’

আজ ঢাকায় বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা তেমন নেই। তবে সন্ধ্যার পর বৃষ্টি হতে পারে বলেও জানান এ আবহাওয়াবিদ।

শনিবার জ্যৈষ্ঠের ২৫ তারিখ, কবে নাগাদ বর্ষা আসছে- জানতে চাইলে নাজমুল হক বলেন, ‘আমরা পূর্বাভাস দিয়েছি আগামী ৩ থেকে ৪ দিনের মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু টেকনাফ অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশে আসতে পারে। এরপর এটি ধীরে ধীরে সারাদেশে বিস্তৃত হবে। তখন এর প্রভাবে বৃষ্টি শুরু হবে। তবে সেটা মৌসুমী বায়ু হলে এরপরের পূর্বাভাস আমরা পরে দেব।’

সাগরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত বহাল : গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি একই এলাকায় অবস্থান করছে। এর প্রভাবে গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার সৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

এ জন্য শুক্রবার জারি করা সমুদ্রবন্দরগুলোর জন্য ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত শনিবারও বহাল রয়েছে।

বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদী বন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজারের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ দমকা বা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।



আমার বার্তা/০৮ জুন ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন