শিরোনাম :

  • বিভীষিকাময় ২১ আগস্ট আজ দেশে ফিরেছেন ১৬৬৭০ হাজি মক্কায় আরও এক বাংলাদেশি হাজির মৃত্যু প্রথম দিনই মিডিয়া সেশনে আসবেন দুই নতুন কোচ আজ নায়করাজের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী
ঢাকায় পৌঁছেছে এডিস মশার ওষুধের নমুনা
২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২০৬৫ জন
নিজস্ব প্রতিবেদক :
০৬ আগস্ট, ২০১৯ ০৯:৫২:২৮
প্রিন্টঅ-অ+


ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতাধীন এলাকায় ব্যবহারের জন্য মশার ওষুধের নমুনা বিদেশ থেকে ঢাকায় এসে পৌঁছেছে। গতকাল সোমবার দুপুরে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে নমুনাগুলো ঢাকায় এসে পৌঁছায় বলে জানিয়েছেন ডিএসসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায়। এ বিষয়ে ডিএসসিসির প্রধান ক্রয় কর্মকর্তা (উপসচিব) নুরজ্জামান বলেন, মশার ওষুধের নতুন একটি নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। এখনও বিমানবন্দরে আছি। তবে প্যাকেট এখনও খোলা হয়নি। তিনি বলেন, ওষুধের নমুনাটি ভারত থেকে আনা হয়েছে। এর বাইরে বিস্তারিত আর কিছু বলা যাবে না। আজ মঙ্গলবার ডিএসসিসিতে এই ওষুধের পরীক্ষা শেষে আইইডিসিআর এবং কীটতত্ত¡ বিভাগে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি। এবছর রাজধানীসহ সারা দেশে ডেঙ্গু জ্বর মহামারি আকার ধারণ করায় মশা ছিটানো ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। পরে বিভিন্ন ল্যাব পরীক্ষায় প্রমাণ হয় ছিটানো ওষুধের কোনো কার্যকারিতা নেই। হাইকোর্টও কেন জরুরিভিত্তিতে ওষুধ আনা হবে না, তা জানতে চান দুই সিটির কাছে। নতুন ওষুধের নমুনা আনায় দীর্ঘ সময় লাগবে বলেও জানানো হচ্ছিল। এ নিয়ে সমালোচনাও কম হয়নি। এসব আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই ঢাকা দক্ষিণের জন্য মশা নিধনের ওষুধের নমুনা এলো।

সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজারের বেশি মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদিকে ডেঙ্গু পরীক্ষার প্রয়োজনীয় কিটের সংকট দেখা দিয়েছে বলে জানা গেছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য জানিয়েছে।

তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সময়ে মোট ২০৬৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে গেছেন। ডেঙ্গু আতঙ্কে ঢাকার হাসপাতালগুলোতে এই রোগ পরীক্ষার হিড়িক পড়ায় ডেঙ্গুর পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় কিটের সংকট দেখা দিয়েছে বাজারে, দামও বেড়েছে কয়েক গুণ। কোনো কোনো বেসরকারি হাসপাতাল ডেঙ্গু পরীক্ষা বন্ধ করে দিয়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই অবস্থায় রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে অনুরোধ করা হয়েছে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ডেঙ্গু পরীক্ষা না করাতে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, চলতি বছর এ পর্যন্ত মোট ২৭ হাজার ৪৩৭ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৯ হাজার ৭৬১ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। মোট ৭ হাজার ৬৫৮ জন এখনো চিকিৎসাধীন। এর মধ্যে রাজধানীর ৩৮টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৪ হাজার ৯৬২ জন ডেঙ্গু রোগী। আর ঢাকার বাইরের বিভিন্ন জেলায় ভর্তি আছেন ২ হাজার ৬৯৬ জন।

২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হওয়া ২০৬৫ জন নতুন রোগীর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ১ হাজার ১৫৯ জন এবং রাজধানীর বাইরে সারা দেশে ৯০৬ জন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অর্থাৎ, ঢাকার পাশাপাশি ঢাকার বাইরেও নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ১৮ জনের মৃত্যুর তথ্য এ পর্যন্ত নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, যদিও গণমাধ্যমের খবরে মৃত্যুর সংখ্যা কয়েকগুণ বেশি।

এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগে ১৮০ জন, খুলনা বিভাগে ১৫০ জন, রাজশাহী বিভাগে ১১২ জন, বরিশাল বিভাগে ৯৯ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৬১ জন, রংপুর বিভাগে ৪৭ জন এবং সিলেট বিভাগে ৩৬ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালে।



আমার বার্তা/০৬ আগস্ট ২০১৯/জহির





 


আরো পড়ুন