শিরোনাম :

  • ঝিলপাড়ে শুধুই আহাজারি ১ হাজার ৯৪২ জন হাজি দেশে ফিরেছেন ভিএআর কেড়ে নিলো ম্যানসিটির জয় বিমানের ফিরতি হজ ফ্লাইট শেষ হবে ১৫ সেপ্টেম্বর টানা ১১ জয়ে রেকর্ডে ভাগ বসাল লিভারপুল
স্মিথ-ওয়ার্নার ১৩ মাস পর জাতীয় দলের অনুশীলনে
স্পোর্টস ডেস্ক :
০৫ মে, ২০১৯ ১৬:৪৩:২৫
প্রিন্টঅ-অ+


বিশ্বকাপকে সামনে রেখে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অনুশীলন ক্যাম্প শুরু হয়ে গেছে গত শুক্রবার থেকেই। কিন্তু অসুস্থতাজনিত কারণে প্রথম দুই দিন দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারেননি সাবেক অধিনায়ক ও সহ-অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নার।

অবশেষে রোববার প্রায় ১৩ মাস পর জাতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলন করলেন এ দুই ক্রিকেটার। গত বছরের মার্চে বল টেম্পারিং কাণ্ডে ১ বছর নিষিদ্ধ থাকার পর, দুজনই মুক্তি পান চলতি বছরের মার্চে। কিন্তু পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের স্কোয়াডে না থাকায় তাদের খেলতে পাঠানো হয় আইপিএলে।

ফলে নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেলেও জাতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলন করা হয়নি স্মিথ-ওয়ার্নারের। অবশেষে আজ (রোববার) পুরো বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন এ দুই তারকা ক্রিকেটার।

আইপিএলের মাঝপথে জাতীয় দলের ডাকে ফিরে আসার আগে ১২ ম্যাচে ৬৯.২০ গড়ে ৮ ফিফটি ও ১ সেঞ্চুরিতে ৬৯২ রান করেছেন ওয়ার্নার। তার এ ধারা বজায় থাকবে জাতীয় দলের হয়েও- এমনটাই আশা করছেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

আজকের অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘আপনি যদি ভারতে (আইপিএলে) ওয়ার্নারের পরিসংখ্যান দেখেন, হায়দরাবাদের হয়ে সে দুর্দান্ত খেলেছে। সে খুব সম্ভবত আইপিএলের প্রতি মৌসুমেই ৫০০’র বেশি রান করেছে। যেটা অসাধারণ ধারাবাহিকতার ইঙ্গিত দেয়। আশা করি ওয়ানডে ক্রিকেটেও এটি চলমান থাকবে।’

দীর্ঘ সময় পর জাতীয় দলের সঙ্গে প্রথম দিনের অনুশীলনের শুরুতে অ্যাডাম জাম্পা এবং নাথান লিয়নের স্পিন মোকাবেলা করেন স্মিথ। পরে মিচেল স্টার্ক, শন অ্যাবট এবং মাইকেল নেসারের গতিময় বোলিংয়ের বিপক্ষে নেট সেশন সারেন তিনি। অন্যদিকে ওয়ার্নার শুধুমাত্র থ্রো ডাউন এবং স্পিন বোলিংয়ের বিপক্ষে ব্যাটিং করেছেন।

সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচের সবকয়টিতেই খেলার সম্ভাবনা রয়েছে স্মিথ-ওয়ার্নারের। ম্যাক্সওয়েল মনে করছেন এ প্রস্তুতি ম্যাচগুলো দিয়েই জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তনের প্রথম ধাপটা পার করবেন স্মিথ-ওয়ার্নার।

ম্যাক্সওয়েল বলেন, ‘আমার মনে হয় তারা সোমবার খেলবে। গত কয়েকদিনে তারা অসুস্থ ছিলো, তবে আশা করছি তারা ম্যাচের আগেই ফিট হয়ে যাবেন। তারা দুজনই অসাধারণ খেলোয়াড়। আমি আইপিএলেও তাদের দেখেছি, তারা সেখানেও দুর্দান্ত ছিলো। দলে ফেরার ক্ষেত্রে কোনো চিন্তা নেই আমার মতে।’

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার ১৫ সদস্যের স্কোয়াড : অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, উসমান খাজা, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কস স্টইনিস, অ্যালেক্স ক্যারে (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিনস, মিচেল স্টার্ক, ঝাই রিচার্ডসন, নাথান কাউল্টার নিল, জেসন বেহেন্ডর্ফ, অ্যাডাম  জাম্পা এবং নাথান লিয়ন।



আমার বার্তা/০৫ মে ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন