শিরোনাম :

  • ১১০ উপজেলা-পৌরসভা-ইউপিতে ভোট শুরু ধর্মঘটে উবার চালকরা ১১ নারী কর্মকর্তাকে শাড়ি উপহার দিলেন অর্থমন্ত্রী চট্টগ্রাম-মদিনা সরাসরি ফ্লাইট ৩১ অক্টোবর পুলিশের ওপর হামলা : নব্য জেএমবির দুই সদস্য গ্রেফতার
আমির মৃত মায়ের জন্য হলেও ভারতের বিপক্ষে জিততে চান
স্পোর্টস ডেস্ক :
১৬ জুন, ২০১৯ ১৫:০৮:১৭
প্রিন্টঅ-অ+


আগের ম্যাচেই করেছেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩০ রান দিয়ে নিয়েছেন ৫ উইকেট। ক্যারিয়ারে এমন বিধ্বংসি স্পেল করার পরও পাকিস্তানকে জেতাতে পারলেন না মোহাম্মদ আমির। হারতে হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার কাছে।

অস্ট্রেলিয়ার সেই ম্যাচ এখন অতীত। পাকিস্তানের সামনে আর কিছুক্ষণ পরই এই বিশ্বকাপের সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ। প্রতিপক্ষ কে? বলাই বাহূল্য, ভারত।

সাম্প্রতিক সময়ে দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক উত্তেজনা এবং যুদ্ধংদেহী মনোভাব ও অবস্থানের কারণে এই ম্যাচটি নিয়ে উত্তেজনা আরও বেড়ে গেছে। যেন কাশ্মীর সীমান্ত থেকে যুদ্ধক্ষেত্রটা সরে গিয়ে ঠাঁই করে নিয়েছে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে।

সেই মহারণে পাকিস্তান জয়ের স্বপ্ন দেখছে শুধুমাত্র মোহাম্মদ আমিরের ছোঁড়া গোলার ওপর ভর করেই। আমির যদি আবারও বিধ্বংসীরূপে আবির্ভূত হতে পারেন, তাহলে বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথমবারেরমত ভারতকে হারানোর স্বাদ পাবে পাকিস্তান।

সেটা কি সম্ভব? মোহাম্মদ আমিরের মাঝে যে অনুপ্রেরণা তৈরি হয়েছে, তাতে করে তিনি আরও বেশি উজ্জীবিত এই ম্যাচ নিয়ে। আরও বেশি প্রস্তুত। মৃত মায়ের জন্য হলেও ভারতের বিপক্ষে এই ম্যাচে পাকিস্তানকে জয় এনে দিতে চান আমির এবং নিজে এই জয়ে হতে চান আসল নায়ক।

চলতি বছর মার্চেই মা নাসিম আক্তারকে হারান মোহাম্মদ আমির। এমন শোকের মাঝেও শুরুতে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলে ছিলেন না তিনি। কারণ, ১৪ ওয়ানডেতে মাত্র ৫ উইকেট। তাকে দলে রাখার কোনো কারণই খুঁজে পেলো না পাকিস্তানের নির্বাচকরা।

শেষ পর্যন্ত ঘটনাচক্রে বিশ্বকাপ দলে এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩০ রানে ৫ উইকেট নিয়ে দিলেন বিধ্বংসী বোলারের প্রমাণ দেন তিনি। ৫ উইকেট নেয়ার পর মোহাম্মদ আমির জানান, তার মা সব সময়ই চাইতেন, যেন আমির প্রতিটি ম্যাচেই ৫টি করে উইকেট পায় এবং সব সময়ই সাফল্যের জন্য দোয়া করতেন।

আমির বলেন, ‘আমার মা অবশ্যই বেহেস্ত থেকে আমার জন্য দোয়া করছেন। আমি যখনই খেলতাম, তাকে সবসময়ই পাওয়া যেতো টেলিভিশনের সামনে এবং সব সময়ই আমার সাফল্যের জন্য দোয়া করতেন। তার সবচেয়ে বড় ইচ্ছা এবং দোয়া ছিল, আমি যেন সব সময় ৫ উইকেট করে পাই। সুতরাং, যখন আমি ৫ উইকেট পেলাম, তখনই কেঁদে দিয়েছিলাম তার কথা স্মরণ করে।’

এখনও পর্যন্ত চার ম্যাচ খেলে মাত্র একটিতে জিতেছে পাকিস্তান। হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং অস্ট্রেলিয়ার কাছে। সবাইকে অবাক করে দিয়ে জিতেছে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। বৃষ্টির কারণে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচটি ভেসে যাওয়ায় ভাগাভাগি করে ১ পয়েন্ট পেয়েছে পাকিস্তান। অর্থ্যাৎ, ৪ ম্যাচে তাদের অর্জন ৩ পয়েন্ট।



আমার বার্তা/১৬ জুন ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন