শিরোনাম :

  • খাদ্যসংকটে বানভাসি মানুষ বিচারকদের নিরাপত্তায় কী ব্যবস্থা : হাইকোর্ট সিভিল সার্ভিসের সামর্থ্য বহুগুণে বৃদ্ধি করেছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেভর বেইলিসকে দলে ভেড়াল কেকেআর পাটুয়াটুলীতে ধসে পড়া ভবন থেকে বাবা-ছেলের মরদেহ উদ্ধার
নিউজিল্যান্ডের বোলিং অ্যাটাকই এ বিশ্বকাপের সেরা!
স্পোর্টস ডেস্ক :
২৩ জুন, ২০১৯ ১১:১১:৪৯
প্রিন্টঅ-অ+


বিশ্বকাপের এখন পর্যন্ত সেরা বোলিং পারফরম্যান্স কাদের? টুর্নামেন্টের মাঝপথ শেষে এই প্রশ্ন করলে , খালি চোখেই বলে দেয়া যায় এই বিশ্বকাপ এখন পর্যন্ত সেরা বোলিং পারফরম্যান্স কিউই বোলারদের। একমাত্র দল হিসেবে এখনো পর্যন্ত তাদের বিপক্ষে কেউ তিনশ বা ততোধিক রান করতে পারেনি কেউ। তার উপর টুর্নামেন্টের সেরা এভারেজ, সেরা স্ট্রাইকরেট এবং সেরা ইকোনমি রেট সবগুলোই কিউই বোলারদের দখলে।

নিউজিল্যান্ডের বোলিং কেন সেরা তার একটি ব্যাখ্যাও দিয়েছে ক্রিকেটভিত্তিক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো। সেখানে নিউজিল্যান্ডের বোলিং পরিসংখ্যান তুলে ধরে তাদের সক্ষমতার কথা তুলে ধরা হয়।

শুরুর ওভার করার জন্য নিউজিল্যান্ডের কাছে ট্রেন্ট বোল্টের মতো বোলার আছে যে কিনা দু'দিক থেকেই বলকে সুইং করাতে পারেন। তাকে সঙ্গ দেয়ার জন্য মার্ক হেনরি আছেন। যিনি কিনা বোল্টের মতোই বোলিং করতে পারেন এবং উইকেট অনুযায়ী বল করার ক্ষমতা আছে তার। দুর্দান্ত সব বাউন্সার এবং ইয়র্কার বল করার জন্য তাদের কাছে লোকি ফারগুসনও আছে। টুর্নামেন্টের সেরা পাঁচ জন দ্রুতগতির বোলারের মধ্যে একজন ফারগুসন।

এছাড়াও বাঁহাতি স্পিনার ব্ল্যাকক্যাপস দলে রয়েছেন মিচেল স্যান্টনার। লেগ স্পিনার না হলেও দলকে যেকোন সময় ব্রেক-থ্রু এনে দেয়ার সক্ষমতা আছেন তার। ইয়ার। সে। পঞ্চম বোলার হিসেবে কিউইদের কাছে দুটি অপশন রয়েছে কলিন ডি গ্রান্ডহোম ও জিমি নিশাম। এছাড়াও পার্ট টাইমার হিসেবে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও বল করতে পারেন।

এক ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়ায় পাঁচ ম্যাচ খেলে টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত সর্বমোট ৪৫ টি উইকেট নিয়েছে নিউজিল্যান্ডের বোলাররা। সত্যিই যা দুর্দান্ত। এদিকে দলের বোলারদের এমন সাফল্য নিয়ে তুষ্ট কিউই হেড কোচ গ্যারি স্টেড। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, এই বিশ্বকাপে কয়েকটি দলের কাছেই ভালো বোলিং লাইনআপ আছে। যেমন দক্ষিণ আফ্রকার কাছে খুব ভালো কয়েকজন বোলার আছে। আমাদের লাইনআপ সেরা কি-না তা আমি বলতে পারবো না।'

তিনি আরও বলেন, 'আমরা এমন উইকেটে এখন পর্যন্ত খেলেছি যেখানে খুব বড় স্কোর সচরাচর হয় না। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আমরা যে উইকেটে খেলেছি, সেটা আমাদের আশার থেকেও খুব স্লো উইকেট ছিল। তবে আনন্দের বিষয় হচ্ছে আমরা সেটার সঙ্গে ভালোভাবেই মানিয়ে নিয়েছিলাম। আমাদের বোলিংকে আমি খুব উচ্চমানেরই মনে করছি।’



আমার বার্তা/২৩ জুন ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন