শিরোনাম :

  • আজ দেশের ১০ অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি হতে পারে ১৭৯ পুলিশ পরিদর্শককে বদলি করা হয়েছে কাভার্ডভ্যানের চাপায় যাত্রাবাড়ীতে ট্রাফিক পুলিশ সদস্য নিহত ২১০ দিন পর স্ত্রীকে কাছে পেয়ে আবেগপ্রবণ বৃদ্ধ
‘বাচ্চার ডায়পার বদলানো’ মিস করছেন হার্দিক পান্ডিয়া
স্পোর্টস ডেস্ক :
১৭ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:০৫:২০
প্রিন্টঅ-অ+


মাঠের ভেতরে যেমন আগ্রাসী ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত, তেমনি মাঠের বাইরে জীবনযাপনেও বেশ উদ্দাম ভারতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় হার্দিক পান্ডিয়া। তবে বর্তমানে নিজেকে অনেকটাই শান্ত করে নিয়েছেন পান্ডিয়া। বিশেষ করে প্রথম সন্তানের বাবা হওয়ার পর এখন পরিবারের প্রতি দায়িত্বগুলোও যেনো বুঝতে পারছেন তিনি।

শুক্রবার রাতে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। চার নম্বরে নেমে ১১ বলে ২১ রানের ইনিংস খেলে ‘সুপার স্ট্রাইকার অব দ্য ম্যাচ’ পুরস্কার জিতেছেন হার্দিক পান্ডিয়া। পুরস্কার গ্রহণ করার সময় পান্ডিয়া জানিয়েছেন এখন আর আগের মতো পার্টি মিস করার সময় নয়।

করোনাভাইরাসের কারণে ভারতের বদলে এবারের আইপিএল হচ্ছে আরব আমিরাতে। তাও উন্মুক্তভাবে নয়। সব দলকে বায়ো সিকিউর বাবলের মধ্যে রেখে চালানো হচ্ছে পুরো টুর্নামেন্ট। যে কারণে আগের মতো ম্যাচ পরবর্তী উদযাপন কিংবা ছুটির দিনে পার্টি করার সুযোগ নেই খেলোয়াড়দের।

এছাড়া এখন এগুলো মিসও করছেন না পান্ডিয়া। সঞ্চালক ড্যানি মরিসন পান্ডিয়াকে জিজ্ঞেস করেন, বায়ো সিকিউর বাবলের কারণে পার্টিতে যাওয়া কি মিস করেন তিনি? উত্তরে পান্ডিয়া বলেন, ‘আমি এখন একজন বাবা হয়েছি। তাই আমার মনে হয়, আমার ওসব মিস করা উচিত নয়। আমার বরং বাচ্চার ডায়পার বদলানো মিস করা উচিত।’

কলকাতার বিপক্ষে ম্যাচটিতে জিতে আরও একবার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে গেছে মুম্বাই। নিজেদের খেলা ৮ ম্যাচের মধ্যে ছয়টিতেই জিতেছে টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। শুক্রবার কলকাতার বিপক্ষে ম্যাচে এসেছে সহজ জয়। যেখানে পান্ডিয়া খেলেছেন নিজের স্বাভাবিক ক্রিকেট।

এই ম্যাচে নিজের ব্যাটিং সম্পর্কে পান্ডিয়া বলেছেন, ‘আমি এই একই ব্যাট দিয়ে তিন বছর ধরে খেলছি। তাই এটা নিশ্চয়ই ভালো ব্যাট। আমি এটা নিশ্চিত করি যে, নিজের টেকনিক নিয়ে যেনো কাজ করা হয়। পাশাপাশি শেপ ধরে রাখাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাটিংয়ের সময় আমি গভীরে ভাবতে পছন্দ করি। অনেক ফ্যাক্টর নিয়ে আলোচনা করি। যেগুলো কাজে লেগে যায়। এসব খুব উপভোগ করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিষয়টা সহজ। বলটা দেখুন এবং যথাযথ শট খেলুন। নিজের ব্যাটিংয়ে আমি সবসময় জিনিসগুলো সহজ রাখার চেষ্টা করি। আমি জানি না পরের ডেলিভারিটা বোলার কেমন বল করবে। আমি মনে করি যে বোলার এ জায়গায় বল ফেলবে, সেই মোতাবেক শটের কথা ভাবি। কিন্তু শেষতক বলের মেধা বিচার করেই শট খেলি।’



আমার বার্তা/১৭ অক্টোবর ২০২০/জহির


আরো পড়ুন