শিরোনাম :

  • রাজধানীর উত্তরখানে আগুনে একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় তিতলিবাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনরায়কে ঘিরে ঢাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় আজ
গাজীপুরে ৮৫৮ বোতল ফেনসিডিলসহ ৬ মাদক কারবারি আটক
গাজীপুর প্রতিনিধি :
০১ জুন, ২০১৯ ১৫:৫১:৩৯
প্রিন্টঅ-অ+


গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী থেকে অভিনব কায়দায় মাদক পরিবহনকালে আন্তঃজেলা মাদক চোরাচালানচক্রের ছয় সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। এ সময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত ট্রাক ও প্রাইভেটকারসহ ৮৫৮ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়।

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে র‌্যাব-১ এর একটি দল টঙ্গী পূর্ব থানাধীন শালিকচূড়া এরশাদনগর এশিয়া ফুয়েল স্টেশনের পশ্চিম পার্শ্বে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ওপর থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃত আন্তঃজেলা মাদক কারবারিচক্রের সদস্যরা হলেন- শিবু বর্মন (৪৫), রসেন বর্মন (২০), নূর ইসলাম (৩০), লোকমান হোসেন (২৪), জিহাদ হোসেন (২০) ও সাদ্দাম হোসেন (৩০)।

র‌্যাব-১ অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল সারওয়ার-বিন-কাশেম বলেন, আটক শিবু বর্মনকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে পেশায় একজন ট্রাকচালক। সে গত প্রায় ১০ বছর ধরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ট্রাক চালিয়ে আসছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখে ফাঁকি দিয়ে ট্রাকে মাদকদ্রব্যসহ ফেনসিডিল দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে রাজধানীতে নিয়ে আসে। মাদক ব্যবসায়ীরা তাকে চালানপ্রতি ২০ হাজার টাকা করে দিত। একাধিকবার দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মাদকের চালান ঢাকায় নিয়ে আসে। মাদক পরিবহনে রসেন বর্মন তার সহযোগী হিসেবে কাজ করে বলে জানায়।

রসেন বর্মনকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে ট্রাকের হেলপার হিসেবে কর্মরত। সে ২০১৮ সালে এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করার পর গ্রামে কৃষিকাজ করত। কৃষিকাজের ফাঁকে ফাঁকে সে শিবু বর্মনের সঙ্গে মাদক পরিবহনে সহযোগী হিসেবে কাজ করত। সে শিবু বর্মনের সঙ্গে একাধিকবার দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মাদকের চালান ঢাকায় নিয়ে এসেছে বলে জানায়।

নূর ইসলাম জানায়, জব্দকৃত ফেনসিডিলের চালানটি রাজধানীর প্রবেশপথ গাজীপুরের টঙ্গী এলাকা থেকে গ্রহণ করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় তাদের পূর্ব নির্ধারিত স্থানে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল।

লোকমান হোসেন পেশায় পাঠাওচালক। সে এইচএসসি পাস করার পর ঢাকা শহরে পাঠাওচালক হিসেবে কর্মরত এবং পাশাপাশি মাদক ব্যবসায় জড়িত। সে তার সহযোগী জিহাদ হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে ফেনিসডিলের চালানটি গ্রহণ করার জন্য প্রাইভেটকারসহ গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় আসে। জিহাদ হোসেন লোকমানের মাধ্যমে মাদক ব্যবসায়ের সাথে জড়িত হয় বলে জানায়।

অপর আটক সাদ্দাম হোসেনও উবারের গাড়িচালক। লোকমান এবং সাদ্দাম তার প্রাইভেটকারটি ভাড়া করে মাদকের চালানটি সংগ্রহ করার জন্য গাজীপুরের টঙ্গী এলাকা আসে। মাদকদ্রব্য এবং আটকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।



আমার বার্তা/০১ জুন ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন