শিরোনাম :

  • রোকেয়ার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে নারীরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়বে : প্রধানমন্ত্রী নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেল : রাষ্ট্রপতি বেগম রোকেয়া দিবস আজ উগ্রবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন শুরু হচ্ছে আজ
নরসিংদীতে শতকোটি টাকার মিল দখল, আ.লীগ নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ
নরসিংদী প্রতিনিধি :
০৭ নভেম্বর, ২০১৯ ১৭:১০:২১
প্রিন্টঅ-অ+


সোনালী ব্যাংকের করা দখল ও জালিয়াতির মামলায় নরসিংদীর আওয়ামী লীগ নেতা আতাউর রহমান ওরফে সুইডেন আতাউরকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে দুদিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শত কোটি টাকার মোল্লা স্পিনিং মিল অবৈধভাবে দখলের মামলায় বৃহস্পতিবার দুপুরে আতাউরের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর পাশাপাশি জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন নরসিংদীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যজিস্ট্রেট মনিষা রায়। মামলার তদন্তকারী সিআইডি কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করলে দুদিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেয়া হয়।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর মালিবাগ থেকে আতাউরকে গ্রেফতারের পর নরসিংদী পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। তার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ভূমি ও শিল্পপ্রতিষ্ঠান দখল, প্রতারণা এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের নানা অভিযোগ রয়েছে।

মোল্লা স্পিনিং মিল অবৈধভাবে দখলের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার বিকেলে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাইনুউদ্দিন কাদিরের আদালতে আতাউরকে হাজির করা হয়। গ্রেফতার আতাউর নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য। পুলিশের কাছে আওয়ামী লীগের সভাপতি বলে দাবি করেছেন সুইডেন। আওয়ামী লীগের পরিচয়ে ১০ বছরে ৫শ কোটি টাকার মালিক হয়েছেন আতাউর।

মামলার তদন্তকারী সিআইডি কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করলে চার ঘণ্টা করে তিনদিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন বিচারক। কিন্তু সিআইডির তদন্তকারী কর্মকর্তা কাজে ব্যস্ত থাকায় তাকে একদিন জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

এইর মধ্যে বৃহস্পতিবার আতাউরের আইনজীবীরা আদালতে জামিন চান। একই সঙ্গে সিআইডির তদন্তকারী কর্মকর্তা তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবেদন করেন। উভয়পক্ষের আইনজীবীদের যুক্তিতর্ক শুনে আতাউরের জামিন নামঞ্জুর করে আর দুদিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন বিচারক।

সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম বলেন, সুইডেন আতাউর নরসিংদীর বহুল আলোচিত ভূমিদস্যু। তার বিরুদ্ধে জালিয়াতি, প্রতারণা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের একাধিক মামলা রয়েছে। এর মধ্যে সোনালী ব্যাংকের করা একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তার বিরুদ্ধে থাকা অন্য অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখা হবে।

নরসিংদীর চৌয়ালা এলাকায় অবস্থিত মোল্লা স্পিনিং মিলের বিপরীতে সোনালী ব্যাংক থেকে নেয়া ঋণ রয়েছে। সুইডেন আতাউর মিলটি দখল করে নিলে ঋণের অর্থ আদায়ে সমস্যায় পড়ে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকটি। দখল ও প্রতারণার অভিযোগে ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর আতাউর রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করে সোনালী ব্যাংক। ব্যাংকের ইন্ডাস্ট্রিয়াল ক্রেডিট বিভাগের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মোহাম্মদ বেলাল হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

প্রথমে মামলাটি পুলিশ তদন্ত করলেও প্রভাবশালী মহলের নানা তদবিরে তা বাধাগ্রস্ত হয়। পরে মামলাটি সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়। দেশে চলমান শুদ্ধি অভিযানের মধ্যে সুইডেন আতাউরকে গ্রেফতার করা হয়।

মোল্লা স্পিনিং মিলের চেয়ারম্যান আবদুল মতিন মোল্লা বলেন, সুইডেন আতাউর আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে আমার প্রতিষ্ঠানটি দখল করে নিয়েছে। পরে সে পার্শ্ববর্তী ম্যানচেস্টার কম্পোজিট নামে আরেকটি কারখানা দখল করে নেয়। দখলের পর কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেনকে প্রধান অতিথি করে অনুষ্ঠানও করে। অবৈধ দখলের প্রতিবাদ করায় আতাউরের সন্ত্রাসী বাহিনীর হাতে নির্যাতনের শিকারের অভিযোগ করেছেন চৌয়ালা এলাকার নাজমুল মোল্লা। তিনি চিশতিয়া সাইজিং নামে একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। যেটি মোল্লা স্পিনিং মিলের মালিকের আরেক প্রতিষ্ঠান।





আমার বার্তা/০৭ নভেম্বর ২০১৯/রহিমা


আরো পড়ুন