শিরোনাম :

  • রোকেয়ার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে নারীরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়বে : প্রধানমন্ত্রী নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেল : রাষ্ট্রপতি বেগম রোকেয়া দিবস আজ উগ্রবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন শুরু হচ্ছে আজ
খাতুনগঞ্জে ক্রেতাশুন‌্য পেঁয়াজ বাজার
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :
১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৩:২৪:০১
প্রিন্টঅ-অ+


দেশের সবচেয়ে বড় ভোগ্যপণ্যের বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের চাহিদা কমেছে।  ফলে ক্রেতাশুণ্য হয়ে পড়েছে খাতুনগঞ্জ পেঁয়াজ বাজার।

বাজারে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত মজুদ থাকায় এবং উল্লেখযোগ্য ক্রেতা না থাকায় গত দুই দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের মূল্য কমেছে কেজিতে ১০০টাকা।

পেঁয়াজের মূল্য আরো কমে যেতে পারে এই সম্ভাবনা থেকে খুচরা বিক্রেতারা খাতুনগঞ্জ থেকে পর্যাপ্ত পেঁয়াজ পাইকারিতে কিনছেন না।

সর্বশেষ মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের পাইকারি মূল্য প্রতিকেজি ১০০ থেকে ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে আজকের মধ্যেই এই মূল্য আরো কমতে পারে বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছে। এদিকে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ চট্টগ্রামের পাঁচ পয়েন্টে মঙ্গলবার থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে।

চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ বাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী জাবেদ ইকবাল জানান, মাত্রাতিরিক্ত মূল্য বৃদ্ধির কারণে পেঁয়াজের চাহিদায় বড় ধরনের ধস নেমেছে। খুচরা বাজারে সাধারণ মানুষ পেঁয়াজ কেনা রীতিমত বন্ধ করে দিয়েছেন। এর ফলে পাইকারি বাজারে এর বড় প্রভাব পড়েছে। খুচরা বিক্রেতারা বিক্রির জন্য পেঁয়াজ কিনতে খাতুনগঞ্জে আসছেন না।

এই পেঁয়াজ ব্যবসায়ী জানান, পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের চাহিদা এখন গড়ে ৫০ থেকে ৬০ ভাগ পর্যন্ত কমে গেছে। খাতুনগঞ্জে এখন পর্যাপ্ত পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে, সেই তুলনায় ক্রেতা নেই। দাম কমে গিয়ে বড় লোকসান হতে পারে এই আশঙ্কায় খুচরা ক্রেতারা পেঁয়াজ কিনছেন না। এর ফলে মজুদের বিপরীতে বিক্রি কম থাকায় মূল্য কমে যাচ্ছে দ্রুত।

এদিকে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত শনিবার সর্বোচ্চ ২৫০ টাকা পর্যন্ত পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হলেও মঙ্গলবার এই মূল্য ১২০ টাকায় নেমে এসেছে। পাইকারি বাজারে সেই  ‍মূল্য এখন ১০০ থেকে ১১০ টাকা। তবে খুচরা বাজারে এখনো পেঁয়াজ ১৫০ থেকে ১৬০ টাকার নিচে পাওয়া যাচ্ছে না।

এদিকে মঙ্গলবার এয়ার কার্গোতে আমদানিকৃত পেঁয়াজ দেশে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। পাশাপাশি মিয়ানমার থেকেও প্রতিদিন গড়ে ৫০০ টন পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। চাহিদার বিপরীতে সরবরাহ দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলে দ্রুত সময়ের মধ্যে পেঁয়াজের মূল্য ৪০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে নেমে আসবে বলে বিক্রেতারা আশা প্রকাশ করেছেন।

টিসিবি’র চট্টগ্রামের জামাল উদ্দিন আহাম্মেদ ৪৫ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, চট্টগ্রাম মহানগরীর কোতোয়ালি, বায়েজিদ, পাহাড়তলী, বন্দর, ইপিজেড এলাকায় ট্রাকে করে ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে। চট্টগ্রাম মহানগরীর সকল এলাকার মানুষ এসব এলাকা থেকে পেঁয়াজ সংগ্রহ করতে পারবেন।



আমার বার্তা/১৯ নভেম্বর ২০১৯/রহিমা


আরো পড়ুন