শিরোনাম :

  • আজ দেশের অর্ধেক অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা হিন্দু পরিবারের সম্পত্তিতে ভারতে ছেলে-মেয়ে সমান অধিকার লেবানন বিস্ফোরণের পর স্বাস্থ্য সংকটে, বাড়ছে করোনার প্রকোপ এখন ট্যাংকবাহী যানও নির্মাণ করছে ইরান
নওগাঁয় জমি নিয়ে বিরোধ, হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখল লাশ
নওগাঁ প্রতিনিধি :
১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৭:২৯:২৯
প্রিন্টঅ-অ+


জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধে নওগাঁর বদলগাছীতে স্বপন মন্ডল (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার পারসিন্দুরপুর গ্রামের একটি বাঁশঝাড়ে গাছের সঙ্গে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত স্বপন মন্ডলের বাড়ি উপজেলার দেউলিয়া গ্রামের হঠাৎপাড়ায়। পেশায় কবিরাজ ছিলেন। বাবার নাম মৃত সোলায়মান আলী।

স্থানীয়রা ও নিহতের পরিবার জানিয়েছে, কয়েকদিন আগে স্বপন পারসিন্দুরপুর গ্রামের বুড়িতলায় কেনা জমিতে বাড়ি নির্মাণের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ সময় স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি তাকে বাধা দেয় এবং মারধর করে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয়। তারা অভিযোগ করেন জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে স্বপনকে বৃহস্পতিবার রাতে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এরপর মরদেহ বাঁশঝাড়ে গাছের ডালের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

তারা আরও জানান, মরদেহ উদ্ধারের সময় তার দুই পা মাটিতে এবং হাঁটু ভাজ করা অবস্থায় ছিল। সকালে স্থানীয়রা মাঠে ছাগলকে ঘাস খাওয়াতে গিয়ে জঙ্গলের একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় স্বপনের মৃতদেহ দেখে চিৎকার শুরু করে। পরে বিষয়টি থানায় জানানো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

শ্বশুর আব্দুল জব্বার বলেন, জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধ ও মারধরের বিষয়টি আপোষ করার নামে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কয়েকজন স্বপনকে ডেকে নেয়। এরপর সে আর বাড়িতে ফিরেনি। জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে পরিকল্পিত হত্যার পর তাকে গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

বদলগাছী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী জোবায়ের আহম্মেদ বলেন, সংবাদ পেয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের শরীরের একাধিক স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধের জেরেই তাকে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।



আমার বার্তা/১২ ডিসেম্বর ২০১৯/রহিমা


আরো পড়ুন