শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
মধ্যরাতে যাত্রীদের নিরাপত্তায় মেয়রের উদ্যোগে ফ্রি বাস সার্ভিস
৩০ এপ্রিল, ২০২২ ১১:৪৭:৫৬
প্রিন্টঅ-অ+

আসন্ন ঈদুল ফিতরে ঘরমুখো যাত্রীদের নিরাপত্তায় মধ্যরাতে থেকেই বরিশাল সিটি করপোরেশনের ব্যানারে ফ্রি বাস সার্ভিস চালু করেছেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।


গতকাল শুক্রবার রাত ১২টার পর থেকে বরিশাল নদী বন্দরে আসা লঞ্চের যাত্রীদের নিয়ে এসব বাস বিনা ভাড়ায় নগরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল নথুল্লাবাদ ও রুপাতলী বাস টার্মিনালে পৌঁছে দিচ্ছে।


সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, মধ্যরাতে যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ সিটি মেয়রের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে গত কয়েক বছর ধরে মাঝরাতে নগরে ফ্রি বাস সার্ভিস চালু করেন। এক্ষেত্রে নির্ধারিত দুটি গন্তব্যে যেতে যাত্রীদের কোন টাকা গুনতে হয় না। এবারেও আগের ধারাবাহিকতায় ৩০টি বাসের মাধ্যমে লঞ্চঘাট থেকে বিনা ভাড়ায় নিরাপদে যাত্রীদের নথুল্লাবাদ ও রুপাতলী বাস টার্মিনালে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। ফলে সেখান থেকে যাত্রীরা পরবর্তী গন্তব্যের উদ্দেশ্যে নিরাপদেই রওয়ানা দিতে পারছে।


সিটি করপোরেশনের প্রশাসনিক কর্মকর্তা স্বপন কুমার দাস জানান, আজ ৩০টির মতো বাস দিয়ে এ সেবা দেওয়া হলেও আগামীকাল সংখ্যা আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেয়র।


ফ্রি বাস সার্ভিসের সুবিধা পেয়ে যাত্রীরা বলছেন, এতে করে মধ্যরাতে নগর পরিবহনের চালকদের সাথে দর কষাকষি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন ধরনের ঝামেলা থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে। আর লঞ্চঘাট থেকে নিরাপদে বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছে পরবর্তী পথের যাত্রাও নিরাপদ হচ্ছে।


অপরদিকে মাঝরাতে নদী বন্দর এলাকায় কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, ঈদের মৌসুমে ঢাকা থেকে বরিশাল নদীবন্দরে লঞ্চগুলো পৌঁছে মধ্যরাতের পর। ওই সময় বরিশালের বিভিন্ন উপজেলাসহ বিভাগের ৬ জেলার বাসিন্দাদের নিজ নিজ গন্তব্যে পৌঁছাতে নানা বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। একসঙ্গে অনেকগুলো যাত্রীবাহী লঞ্চ নদীবন্দরে নোঙর করায় যাত্রীদের চাপ সৃষ্টি হয়। এর ফলে নদীবন্দর থেকে নগরের রুপাতলী ও নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালসহ স্বল্প দূরত্বে যেতে সিএনজি অটোরিকশা, অটোরিকশা, রিকশা সংকটে পড়েন যাত্রীরা। এই সমস্যার সমাধানে যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্যে গন্তব্যে যেতে নদীবন্দর থেকে দুই বাস টার্মিনাল পর্যন্ত ফ্রি বাস সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।


তিনি বলেন, এই সার্ভিসে পর্যাপ্ত সংখ্যক বাস রাখা হয়েছে।


এছাড়া ঘরমুখো মানুষের বিভিন্ন সেবায় নদী বন্দর ও আশপাশের এলাকায় সেচ্ছাসেবক হিসেবে সিটি করপোরেশনের স্টাফদের পাশাপাশি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কাজ করছেন বলে জানান নগর আওয়ামীলীগের এই সাধারণ সম্পাদক।

আরো পড়ুন