শিরোনাম :

  • রোকেয়ার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে নারীরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়বে : প্রধানমন্ত্রী নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেল : রাষ্ট্রপতি বেগম রোকেয়া দিবস আজ উগ্রবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন শুরু হচ্ছে আজ
খাল দখল করে গড়ে ওঠা সব বিল্ডিং ভেঙে দেয়া হবে : ডিএনসিসি মেয়র
নিজস্ব প্রতিবেদক :
১১ এপ্রিল, ২০১৯ ১৫:২৫:০১
প্রিন্টঅ-অ+


রাজধানীর মিরপুর এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে আগামী দুই মাসের মধ্যে বাউনিয়া খালের সঙ্গে আরেকটি ড্রেন যুক্ত করার ঘোষণা দিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, খাল দখল করে বিল্ডিং গড়ে উঠেছে। ডিএনসিসির জায়গায় অবৈধ যা কিছুই থাকুক না কেন, তা ভেঙে দেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার মিরপুরের কালশী এলাকার খাল পরিস্কার কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র বলেন, ওয়াসার খাল আমরা পরিষ্কার করছি। খালের ওপর গড়ে ওঠা বহুতল ভবনগুলো ভাঙতে না পারলে স্থায়ী সমাধান হবে না। জলাবদ্ধতার কারণে এখানকার জনগণ দুর্ভোগে আছে, সমস্যায় আছে। খাল দখলকারী কয়েকজনের জন্য এ এলাকার সব মানুষ কষ্ট পাচ্ছে। খালের ওপরে গড়ে তোলা বিল্ডিং প্রয়োজনে সবার সঙ্গে কথা বলে ভেঙে দেয়া হবে।

আতিকুল ইসলাম বলেন, এখানে বাইশটেকি ও বাউনিয়া খাল রয়েছে। বাইশটেকি খাল মদিনা নগরে গিয়ে ৩০ ফুটের জায়গায় দুই ফুট হয়ে গেছে। খালের ওপরে বহুতল ভবন গড়ে উঠেছে। আমরা যতটুক পারি আমাদের যন্ত্র দিয়ে খালের ময়লা পরিষ্কার করে দেব। ডিএনসিসির অধীনে অবৈধ যা কিছু থাকবে তা ভেঙে দেব। আগামী দুই মাসের মধ্যে বাইশটেকি খালের সঙ্গে পূর্ব দিক দিয়ে আরেকটি ড্রেন নিয়ে দক্ষিণে বাউনিয়াতে সংযুক্ত করে দেয়া হবে।

কালশী এলাকার বাড়ির মালিকদের উদ্দেশ্যে মেয়র বলেন, আপনারা কীভাবে খালটিকে ডাস্টবিন হিসেবে ব্যবহার করছেন? কীভাবে আপনার খালপাড়ে বাড়ি করেন? আপনারা আমাদের দোষ দিচ্ছেন। এসব দখলদারীদের বিরুদ্ধে জনগণকে অবশ্যই সচেতন হতে হবে।

এ সময় ডিএনসিসির প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহাম্মদ যুবায়ের সালেহীন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক কমডোর আব্দুর রাজ্জাক, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ কুদরত উল্লাহ, পাঁচ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুর রউফ নান্নু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



আমার বার্তা/১১ এপ্রিল ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন