শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে গৃহবধূর আত্মহত্যা
১১ এপ্রিল, ২০২২ ১২:২৪:০২
প্রিন্টঅ-অ+

রাজধানীর উত্তর বাড্ডার তেতুলতলা এলাকায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে উর্মি আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল রোববার সকালে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠায় পুলিশ।


নিহত উর্মি আক্তারের স্বামী বেনজীর আহমেদ বলেন, আমি একটি রেস্তোরাঁয় চাকরি করি। আমার স্ত্রী গার্মেন্টসে চাকরি করে। গত ৭ মাস হলো আমরা সম্পর্ক করে বিয়ে করেছি। গত শনিবার রাতে আমি হোটেল থেকে খাবার নিয়ে আসি, কিন্তু আমি রোজা ছিলাম না। দুপুরে খেতে গিয়ে দেখি তরকারি নষ্ট হয়ে গেছে। তরকারি গরম না দেওয়ায় আমি তার সঙ্গে রাগারাগি করে বাসা থেকে বেরিয়ে যাই। বাসা থেকে বের হওয়ার পর তাকে অনেকবার মোবাইলে ফোন দিয়েছি, কিন্তু সে ফোন রিসিভ করেনি। পরে রাতে বাসায় এসে দেখি দরজা লাগানো দরজা খুলছে না। অনেক ডাকাডাকি করলাম কিন্তু দরজা খুলে না। পরে দরজার নিচে দিয়ে তাকিয়ে দেখি সে গলায় ফাঁস নিয়ে ঝুলছে। এরপর বাড্ডা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করে। সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠায় পুলিশ।


তিনি বলেন, আমরা উত্তর বাড্ডার তেতুলতলা এলাকার নাজমা বেগমের ১৩/৯ নম্বর বাসায় ভাড়া থাকি।


বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছিলাম। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামীর কাছ থেকে জানতে পারি সামান্য বিষয়ে মনোমালিন্যের পর অভিমানে তার স্ত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

আরো পড়ুন