শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
তুরাগে গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন : দুর্ভোগে বৈধ সংযোগধারীরা
মোঃ মিজানুর রহমান
২৩ জুলাই, ২০২২ ২০:৫৯:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+

রাজধানী ঢাকার তুরাগের দিয়াবাড়ি এলাকায় গত মঙ্গলবার অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে  তিতাস গ্যাস কৃর্তপক্ষ। এসময় মূল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় তিতাস কর্তৃপক্ষ। এতে করে বৈধ সংযোগধারী দিয়াবাড়ি, তারার টেক, নলভোগ, ফুলবাড়িয়া, নয়ানগরসহ আসপাশ এলাকার হাজারো পরিবার এখন মানবেতর জীবনযাপন করছে। গত তিন দিন থেকে ঘরে কোন চুলা জ্বলছেনা। শুকনো খাবার খেয়ে দিন পার করছেন স্থানীয়রা।


সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, টিনসেড বাড়ি, সেমিপাকা বাড়ি নয় তলা বাড়িতেও গ্যাস নেই। শুধু তাই নয় হোটেলে ও গ্যাস নেই আর তাতেই চরম বিপাকে সাধারণ জনতা।  ভাড়াটিয়ারা বলছেন, আমরা বছরের পর বছর ভাড়া আছি কখনো জানতেই পারিনি আমরা মাসিক বিল পরিশোধ করে যে গ্যাস ব্যাবহার করছি তাহা বৈধ না অবৈধ। শুধু তাই নয় বরং অনেক বাড়িওয়ালা অভিযোগ করে বলেন, আমাদের বৈধ সংযোগও বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। বিভিন্ন যায়গায় দৌড়ঝাঁপ করেও কোন সমাধান পাচ্ছি না এর সমাধান কি আদৌ পাবো। এক দিকে এলাকা ভিত্তিক বিদ্যুতের লোডশেডিং তার উপরে গ্যাস সংকট আমরা ছোট ছোট ছেলেমেয়ে বয়োবৃদ্ধ মানুষগুলো নিয়ে কোথায় যাবো, কি করবো। তারারটেক এলাকার কামরুল জানান, অফিসের লোকজন মাসিক মাসোয়ারা নিয়ে কিছু কিছু অবৈধ সংযোগ চালিয়ে আসছেন, এই সিন্ডিকেটের সাথে তিতাসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা স্থানীয় কন্ট্রাক্টর ও প্রভাবশালী কিছু লোক জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কিন্তু এই দায়তো সাধারণ বাসিন্দারা নেবেনা। তিতাসগ্যাস কর্তৃপক্ষের বৈধ অবৈধ যাচাই বাছাই করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হলে মানুষের ভোগান্তি হতো না।


নলভোগ এলাকায় বসবাসকারী সাংবাদিক আরিফুর রহমান জানান, গত তিন দিন থেকে বাসায় কোন চুলা জ্বলছেনা। শুকনো খাবার খেয়ে দিন কাটাচ্ছি। এদিকে এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে ভুক্তভোগী জনসাধারণের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ দ্রুত এর সমাধানে ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে যেকোনো সময় সাধারণ মানুষ ফুঁসে উঠতে পারে।


এ বিষয়ে তিতাস গ্যাসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এনামূল হকের সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছি এই বিষয়ে আমাদের কিছুই করার নেই। আপনি এটা মনে করার কোন কারন নেই যে আপনিই প্রথম ফোন দিয়েছেন আপনার আগে অনেকেই ফোন করেছে যেহেতু আপনি সাংবাদিক আপনি সকলকে জানিয়ে দিন আগে যেভাবে আমরা সহযোগিতা করেছি এখন আর তাহা সম্ভব নয়। সরকার যেভাবে নির্দেশনা দিচ্ছে আমরা সেটাই বাস্তবায়ন করছি। আমাদের কিছুই করার নেই। কর্তৃপক্ষ যাচাই বাছাই করে যেভাবে নির্দেশনা দিবেন সেভাবেই কাজ করবো।

আরো পড়ুন