শিরোনাম :

  • ঝিলপাড়ে শুধুই আহাজারি ১ হাজার ৯৪২ জন হাজি দেশে ফিরেছেন ভিএআর কেড়ে নিলো ম্যানসিটির জয় বিমানের ফিরতি হজ ফ্লাইট শেষ হবে ১৫ সেপ্টেম্বর টানা ১১ জয়ে রেকর্ডে ভাগ বসাল লিভারপুল
সুদীপ্ত হত্যা : সেই ‘বড় ভাই’ ২ দিনের রিমান্ডে
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :
০৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:০৭:৪৭
প্রিন্টঅ-অ+


চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (৫ আগস্ট) দুপুর ২টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু ছালেম মো. নোমান এ আদেশ দেন।

এর আগে রোববার (৪ আগস্ট) রাতে রাজধানীর বনানী থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) মো. কামরুজ্জামান বলেন, ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা দিদারুল আলম মাসুমকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করেন। আদালত দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামের ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাসকে হত্যা করা হয়েছিল তার দলেরই এক বড় ভাইয়ের নির্দেশে। গত দুই বছরে এতুটুকুই জানতে পেরেছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

গত মাসে মিজানুর রহমান নামে এক আসামির আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানায় সেই বড় ভাই আর কেউ নয়। তিনি নগর আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুম।

মাসুম নগরের লালখানবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। চট্টগ্রামের রাজনীতিতে তিনি নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। ১৯৯৭-৯৮ সালে চট্টগ্রাম সরকারি সিটি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন মাসুম।

তিনি লালখানবাজারের চানমারি রোডের ইপিক কামারপার্ক নামে একটি ভবনের বাসিন্দা আবদুল হকের ছেলে।

আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে আসামি মিজানুর রহমান জানিয়েছিলেন, সুদীপ্ত হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন লালখানবাজার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুম। যিনি ঘটনার আগের দিন আরেক আসামি আইনুল কাদের নিপুকে দুই ঘণ্টার ভেতর কাজ শেষ করে পুরো ঘটনা ভিডিও করে আনার নির্দেশ দেন।

২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর ভোরে চট্টগ্রাম নগরের সদরঘাট থানাধীন নালাপাড়ার বাসায় হানা দিয়ে সুদীপ্তকে ঘুম থেকে তুলে টেনে-হিঁচড়ে বাইরে নিয়ে আসে সেই বড় ভাইয়ের নিয়ন্ত্রণে থাকা ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীরা। এরপর সেখানেই তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সুদীপ্তকে মৃত ঘোষণা করা হয়।



আমার বার্তা/০৫ আগস্ট ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন