শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
তালাক দেয়ায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী আহত, অতঃপর মৃত্যু
২৯ মে, ২০২১ ১৪:৩৯:২৩
প্রিন্টঅ-অ+


গত বুধবার (২৬ মে) দুপুরে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক এলাকায় স্ত্রীর দেয়া তালাকে ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামী ছুরিকাঘাত করে আহত করেন স্ত্রীকে। পরে শুক্রবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্ত্রী আরজিনা আক্তারের মৃত্যু হয় হাসপাতলে।

আরজিনা আক্তার কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক এলাকায় মেহের আলীর বাড়িতে বাসা ভাড়া নিয়ে স্থানীয় একটি কারখানায় চাকরি করতেন। এঘটনায় পুলিশ স্বামী রতন মিয়াকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে। সে নওগা সদর উপজেলার মোকরমপুর গ্রামের মনছুর আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, গত চার মাস আগে নওগাঁ সদর উপজেলার মোকরমপুর গ্রামের মনছুর আলীর ছেলে রতন মিয়ার সাথে আরজিনা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে নানা বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এ ঘটনায় আরজিনা আক্তার স্বামী রতন মিয়াকে ডিভোর্স দেওয়ার জন্য মৌচাক কাজী অফিসে গিয়ে স্বামী রতন মিয়াকে ডিভোর্স দেয়। ওই দিনই সকালে নিকাহ রেজিষ্টার (কাজী) বিষয়টি রতন মিয়াকে ফোনে জানালে রতন মিয়া তাৎক্ষণিক ওই অফিসে গিয়ে তার স্ত্রী আরজিনাকে নিয়ে একটি রিক্সায় উঠে বাসায় রওনা দেন। পথে সুফিয়া হাসপাতালের সামনে আসার পর স্ত্রীকে রিক্সায় বসিয়ে রাখেন এবং পাশেই একটি দা-বটি বিক্রেতার দোকানে গিয়ে একটি ছুরি এনে আরজিনার পেটে কয়েকটি আঘাত করেন।

এসময় স্থানীয় জনতা রতন মিয়াকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে পুলিশের সহায়তায় স্থানীয়রা আরজিনাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর কুমুদিনি হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল শুক্রবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ব্যাপারে মৌচাক পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এস আই সাইফুল আলম জানান, ঢাকা হাসপাতাল থেকে লাশটি তার নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আমার বার্তা/ এইচ এইচ এন


আরো পড়ুন