শিরোনাম :

  • তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী উহান থেকে ২৩ বাংলাদেশিকে নেয়া হয়েছে দিল্লিতে রাজধানীতে ভবনের গ্যারেজে আগুনে শিশুসহ নিহত ৩ নগরের গৃহহীন মানুষের আবাসন সংকটের সমাধান জরুরি
শেয়ারবাজারে সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন
নিজস্ব প্রতিবেদক :
০২ এপ্রিল, ২০১৯ ১৬:৫৩:২০
প্রিন্টঅ-অ+


দরপতনের ধারা থেকে বেরিয়ে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে দেশের শেয়ারবাজার। মঙ্গলবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্যসূচক বেড়েছে।

আগের কার্যদিবসের মতো সোমবার (১ এপ্রিল) দুই বাজারেই মূল্যসূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। তবে দামি শেয়ারগুলোর পাশাপাশি দাম বাড়ার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট।

এ দিন ডিএসইতে দামের দিক থেকে শীর্ষ তালিকায় থাকা ১০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৮টিরই শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ২টির। আর সব খাত মিলে ১৮৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ১০৬টির। আর ৬০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের এই দাম বাড়ার প্রভাবে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক আগের কার্যদিবসের তুলনায় ১৯ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৫২২ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুটি সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৫ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৯৭৭ পয়েন্টে এবং ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৮১ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

মূল্যসূচক ও বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার দিনে ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ কমেছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪১২ কোটি ৫২ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৪২৩ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। সে হিসেবে আগের কার্যদিবসের তুলনায় লেনদেন কমেছে ১১ কোটি ৪৫ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে এ দিন ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের শেয়ার। কোম্পানিটির ৩৮ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর পরেই রয়েছে মুন্নু সিরামিক। কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৬ কোটি ৩৯ লাখ টাকার। ২৪ কোটি ৮৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে এর পরেই রয়েছে ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলস, গ্রামীণফোন, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, জেএমআই সিরিঞ্জ, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, সিঙ্গার বাংলাদেশ এবং ডাচ-বাংলা ব্যাংক।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ৩১ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ২৫২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৪৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৪টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৮৪টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির।



আমার বার্তা/০২ এপ্রিল ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন