শিরোনাম :

  • করোনায় মোট মৃত্যুর চেয়ে এক মাসে আত্মহত্যার সংখ্যা বেশি জাপানে ফ্রান্সে পুলিশি বর্বরতার প্রতিবাদে বিক্ষোভে সহিংসতা ৪৩ শ্রমিককে নাইজেরিয়ায় গলা কেটে হত্যা হালাল ভালোবাসা এত সুন্দর আগে ভাবিনি : সানা খান
সরকারের বেঁধে দেয়া দামে বিক্রি হচ্ছে না আলু, দাম কমলো পেঁয়াজের
নিজস্ব প্রতিবেদক:
০১ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৫৩:৫৩
প্রিন্টঅ-অ+


রাজধানীর পাইকারি বাজার থেকে আবারও প্রায় উধাও আলু। বিক্রি হচ্ছে না সরকারের বেঁধে দেয়া দামে। আড়তদাররা বলছেন, হিমাগার থেকে নির্ধারিত দামে আলু পাচ্ছেন না তারা। এদিকে, সরবরাহ বাড়ায় আমদানি করা পেঁয়াজের দাম কমে আসলেও দেশি পেঁয়াজের বাজার এখনও চড়া।

 আড়তে ঝুলছে সরকার নির্ধারিত মূল্য তালিকা, কিন্তু আলু নাই। এখানে সেখানে যৎসামান্য আলুর দেখা মিললেও দাম নিয়ে চলছে লুকোচুরি। আড়তদাররা খুচরা ৩৫ আর পাইকারি ৩০ টাকা বিক্রির কথা বললেও ভিন্ন তথ্য পাওয়া যায় ক্রেতাদের মুখে।

পাইকারি বাজারে একজন খুচরা বিক্রেতা জানান, তিনি ১০ কেজি আলু কিনেছেন ৪৫ টাকা কেজি দরে। আরেকজন জানান, তিনি কিনেছেন ৩৮ টাকা কেজি দরে।

প্রায় দু'সপ্তাহ আগে আরেক দফা দাম বাড়িয়ে হিমাগারে ২৭ টাকা নির্ধারণ করে দিলেও সরকার নির্ধারতি সেই দামে কিনতে পারছেন না বলে জানান আড়তদাররা।

মাস দু'য়েক আগে ভারতের রপ্তানি বন্ধের ঘোষণায় অস্থির হয়ে যাওয়া পেঁয়াজের বাজার এখনো গরমই বলা যায়। মিশর, চীন, পাকিস্তান থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৪৮ থেকে ৫২ টাকা কেজিদরে। দেশি পেঁয়াজের কেজি ৭৭ থেকে ৮০ টাকা। আমদানি বাড়ায় বিদেশি পেঁয়াজের দাম এক মাসের মধ্যে কেজিতে ১৫ থেকে ২০ টাকা কমেছে বলে জানান বিক্রেতারা। তারা জানান, বাজারে পেঁয়াজের চাহিদাও বেশ ভালো।  

পেঁয়াজ ও আলুর বাজার নিয়ন্ত্রণে টিসিবি ট্রাকে করে বিভিন্ন পয়েন্টে ২৫ টাকা কেজি আলু আর ৩০ টাকা কেজিদরে পেয়াজ বিক্রি চালু রেখেছে।



      আমার বার্তা/১ নভেম্বর ২০২০/সাবাব


আরো পড়ুন