শিরোনাম :

  • খাদ্যসংকটে বানভাসি মানুষ বিচারকদের নিরাপত্তায় কী ব্যবস্থা : হাইকোর্ট সিভিল সার্ভিসের সামর্থ্য বহুগুণে বৃদ্ধি করেছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেভর বেইলিসকে দলে ভেড়াল কেকেআর পাটুয়াটুলীতে ধসে পড়া ভবন থেকে বাবা-ছেলের মরদেহ উদ্ধার
জবিতে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স
নিজস্ব প্রতিবেদক :
১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ১৪:০৬:৩৫
প্রিন্টঅ-অ+


ক্যাম্পাসে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।

তিনি বলেন, যৌন নিপীড়নকে কখনো ছাড় দেইনি। জবিতে যৌন নিপীড়নের দায়ে শিক্ষককে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে, আটকে দেয়া হয়েছে পদোন্নতি। আমরা জবিতে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করছি।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

ফেনীর মাদরাসা শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার প্রতিবাদ ও দ্রুত বিচারের দাবিতে জবি শিক্ষক সমিতি এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

ড. মীজানুর রহমান বলেন, শিক্ষকতা এক সময় ব্রত ছিল। আগে যারা শিক্ষকতা করতেন তাদের লোভ লালসা ছিল না। আগের শিক্ষকরা আর্থিকভাবে অসচ্ছল ছিলেন। অনেক কষ্টে জীবন যাপন করতেন। কিন্তু আমরা আন্দোলন করে শিক্ষকতাকে আকর্ষণীয় পেশা করে তুলেছি। এক সময় শিক্ষকতায় মেধাবীরা আসতো না। এখন শিক্ষকতা লোভনীয় পেশায় রূপ নিয়েছে। অনেকে কালো টাকা সাদা করার জন্যও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে অধ্যক্ষ বা প্রধান হয়ে বসছেন। যাদের শিক্ষক হওয়ার ন্যূনতম যোগ্যতা নেই, তারা হয়ে যান শিক্ষক প্রধান।

জবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. নূর মোহাম্মদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. দিপীকা রাণী সরকার। এ সময় আরও বক্তব্য দেন অধ্যাপক ড. পরিমল বালা, অধ্যাপক ড. শাহজাহান, অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম, অধ্যাপক ড. গোলাম মোস্তফা, অধ্যাপক ড. হোসনে আরা জলী, জবি নীল দলের সভাপতি অধ্যাপক ড. জাকারিয়া মিয়া, সাধারণ সম্পাদক ড. মোস্তফা কামাল প্রমূখ।

মানববন্ধনে শিক্ষকদের সঙ্গে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সাধারণ শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা কর্মচারীরা অংশ নেন।



আমার বার্তা/১৬ এপ্রিল ২০১৯/জহির





 


আরো পড়ুন