শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
দক্ষিণ কোরিয়া আ'লীগের সভাপতি রফিকুল সম্পাদক তফাজ্জল নির্বাচিত
নিউজ ডেস্ক :
২৮ জুন, ২০২২ ২০:০১:২৯
প্রিন্টঅ-অ+

দক্ষিণ কোরিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে সাবেক ছাত্র নেতা রফিকুল ইসলাম ভুট্টো এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তফাজ্জল হোসেন রনো নির্বাচিত হয়েছেন। গত রোববার দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলের একটি অভিজাত রেস্টুরেন্ট বম্বেগ্রীলে এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আবু নইম রাহাত ও জাহান মুনের সঞ্চালনায় দক্ষিণ কোরিয়া আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে আগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন এই আংশিক কমিটি গঠিত হয়। রফিকুল ইসলাম ভুট্টো এবং তফাজ্জল হোসেন রনোর নেতৃত্বে এই কমিটি আগামী তিন মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করবে।


ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে এসময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কমিউনিটি কোরিয়া (বিসিক) সভাপতি আরশাদ আলম ভিকি, হাবিল উদ্দিক, মনিরুজ্জামান মিলন, লুলু জামালী, গ্রীস প্রসাদা ভট্টাচার্য, শেখ মো. ওমর আলী, অশোক দাস, রতন দে, বাপ্পি চক্রবর্তী, আব্দুল ওয়াদুদ জনি সরকার, লুৎফর রহমান, তাবরিজ খান, শেখ কাউসার আহম্মেদ ছাড়াও দ. কোরিয়া আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এদিকে নতুন কমিটিকে অভিন্দন জানিয়েছে দ.কোরিয়া বঙ্গবন্ধু পরিষদ, যুবলীগসহ অন্যান্য পেশাজীবী সংগঠন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী কোরিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশী প্রবাসীরা। নতুন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাদের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, নতুন ও সময়োপযোগী কার্যক্রম হাতে নিয়ে কোরিয়ায় বাংলাদেশি প্রবাসীদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বিকশিত ও আগামী জাতীয় নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে কাজ করে যাবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্ব ও অসীম সাহসিকতায় বাংলাদেশ একটি ছোট দেশ হওয়া সত্ত্বেও বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। বাংলাদেশ তার নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর মত ব্যয় বহুল প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের আবাসন প্রকল্পের আওতায় নিম্নবিত্ত খেটে খাওয়া অসহায় মানুষ মাথা গোঁজার ঠাঁই পেয়েছে। আগের তুলনায় বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বহুগুণ বেড়েছে। আর তাই দারিদ্রতা ও নিরক্ষরতার হার অনেক কমে গেছে। বাংলাদেশের মানুষ এখন সুখে-শান্তিতে বসবাস করছে বলেও মন্তব্য করেন তারা।

আরো পড়ুন