শিরোনাম :

  • আজ পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ যে চ্যানেলে দেখা যাবে বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট ম্যাচ সৌদি অ্যারামকোতে প্রথমবারের মতো নারী প্রধান ইসরায়েলি হামলায় গাজায় রক্তবন্যা, ২৪ ফিলিস্তিনি নিহত
শাহরুখ খানের জানা অজানা যত কথা
বিনোদন ডেস্ক :
০২ নভেম্বর, ২০১৯ ১৫:১৪:৩৮
প্রিন্টঅ-অ+


বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের জন্মদিন আজ। জীবনের বিশেষ এই দিনে তিনি ভাসছেন ভক্ত-অনুরাগীদের শুভেচ্ছায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেন আজ শাহরুখ খান দিবস।

বলিউডের এই সুপারস্টারের জন্মদিনে রইলো কিছু জানা অজানা কথা :

শাহরুখ খানের বাবার নাম তাজ মুহম্মদ খান। তিনি ছিলেন প্রকৌশলী। আর শাহরুখের মায়ের নাম লতিফ ফাতিমা খান। তিনি ছিলেন প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট। তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছিলেন।

১৯৮০ সালের দিকে কৈশোরেই বাবাকে হারান শাহরুখ। তারও ১০ বছরের মাথায় ১৯৯০ সালে মাকে হারিয়ে শোকের সাগরে ভাসলেন শাহরুখ। তখন বেঁচে থাকার জন্য শাহরুখের সামনে সংগ্রামের সমুদ্র।

মা ছিলেন সরকারি চাকরিজীবী। তাই পাঁচ বছর বয়স পর্যন্ত নানীর সঙ্গে কাটাতে হয়েছে শাহরুখকে। প্রথমে ম্যাঙ্গালোর, তারপর ব্যাঙ্গালোরে থাকতেন তিনি। নানী তার দেখাশোনা করতেন। শাহরুখের নানা ম্যাঙ্গালোর বন্দরের মুখ্য প্রকৌশলী ছিলেন।

স্কুলে পড়ার সময় শাহরুখ হিন্দিতে খুব একটা দক্ষ ছিলেন না শাহরুখ। তবে একবার হিন্দি পরীক্ষায় দশে দশ পেয়েছিলেন তিনি। তার পুরস্কার হিসেবে মা সিনেমা দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন।

দিল্লির হংসরাজ কলেজ থেকে অর্থনীতিতে বি এ পাশ করেন শাহরুখ। আর জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়াতে মাস কমিউনিকেশন নিয়ে এম এ পড়তে ভর্তি হন। তবে সেটা আর শেষ করা হয়নি তার।

স্কুলে পড়ার সময় গৌরীর সঙ্গে প্রথম চেনা পরিচিতি হয় শাহরুখের। একটা পার্টিতে দুজনের মধ্যে বেশ অনেকক্ষণ গল্প চলে। তখন থেকেই শুরু হয় শাহরুখ-গৌরীর প্রেম। সেই প্রেম বিয়েতে গড়ায় ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর। বর্তমানে তারা আরিয়ান, সোহানা ও আব্রাম নামের তিন সন্তানের জনক ও জননী।

শাহরুখ খানের প্রথম রোজগার ছিল ৫০ টাকা। গায়ক পঙ্কজ উদাসের একটা কনসার্টে কাজ করে সেই টাকা পেয়েছিলেন। প্রথম রোজগারের টাকা দিয়ে ট্রেনের টিকিট কেটে শাহরুখ আগ্রা গিয়েছিলেন।

অভিনেতা হিসেবে কিং খানের পথচলার শুরু ১৯৮৯ সাল থেকে। ‘ফৌজি’ টিভি সিরিজ দিয়ে শুরু হওয়া এই যাত্রায় আরও কয়েকটি টিভি ধারাবাহিক তার শুরুর দিকের অভিজ্ঞতার খাতায় নাম লেখায়।

বলিউড ডিভা হেমা মালিনির চোখে পড়েই চলচ্চিত্রে আসেন এ অভিনেতা। আর জয় করে নেন বলিউড।

বলিউডে তার অভিষেক হয় ১৯৯২ সালে ‘দিওয়ানা’ ছবির হাত ধরে। আর তাতেই কেল্লা ফতেহ! এ ছবিতে তার দুর্দান্ত কাজের জন্য অর্জন করেন সেরা নবাগত অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার।

শাহরুখের অভিনয়ের খ্যাতি আরও বাড়তে থাকে যশরাজ ফিল্মসের ছবিতে ধারাবাহিকভাবে অভিনয় করে। একের পর এক হিট ছবি দিয়ে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে অবস্থান করেন শাহরুখ। তার ক্যারিয়ারকে বিকশিত করা সেরা মানুষটির নাম প্রয়াত নির্মাতা ও প্রযোজক যশরাজ চোপড়া।

‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’, ‘দিল তো পাগল হ্যায়’ ইত্যাদি ছবিতে অভিনয় করে রোমান্স কিংয়ের উপাধি পান শাহরুখ।

শ্রীদেবী থেকে শুরু করে নতুন প্রজন্মের দীপিকা-আনুশকাদের সঙ্গেও জুটি বেঁধেছেন শাহরুখ। তবে তার নাম সবচেয়ে বেশি উজ্জ্বল কাজলের নায়ক হিসেবে। শাহরুখ-কাজল জুটির আবেদন বলিউডে যেন একটা মিথের মতো। তবে ক্যারিয়ারে তিনি সাফল্য পেয়েছেন মাধুরী দীক্ষিত, জুহি চাওলা, রানী মুখার্জি, রাভিনা ট্যান্ডন, টুইঙ্কেল খান্না, দিব্যা ভারতী, কারিশমা কাপুর, কারিনা কাপুর, ক্যাটরিনা কাইফ, আনুশকা শর্মা, দীপিকা পাড়ুকোনসহ আরও অনেক নায়িকাদের বিপরীতেও।

শাহরুখ খান বিশ্বের সেরা দশজন ধনী অভিনেতাদের তালিকায় গেল পাঁচ বছর ধরে নিয়মিতই স্থান পান।

পদ্মশ্রীসহ দেশি বিদেশি অনেক পুরস্কার পেলেও আজ পর্যন্ত শাহরুখ খানের ভাগ্যে জুটেনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের স্বীকৃতি।

অভিনয় জীবনের বাইরে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে ভালোবাসেন শাহরুখ। বিশাল বাড়ি মান্নাতের পাশাপাশি তার রয়েছে বেশ কয়েকটি বাংলোও। সেখানেই অবসর যাপন করতে দেখা যায় তাকে।

অভিনেতা পরিচয়ের পাশাপাশি একজন প্রযোজক, উপস্থাপক, ব্যবসায়ী হিসেবেও সফল শাহরুখ খান। তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নাম রেড চিলিস। তার মালিকানাধীন ক্রিকেট টিম কলকাতা নাইট রাইডার্স আইপিএলের অন্যতম সফল টিম।



আমার বার্তা/০২ নভেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন