শিরোনাম :

  • আজ পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ যে চ্যানেলে দেখা যাবে বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট ম্যাচ সৌদি অ্যারামকোতে প্রথমবারের মতো নারী প্রধান ইসরায়েলি হামলায় গাজায় রক্তবন্যা, ২৪ ফিলিস্তিনি নিহত
অমিতাভ ও শাহরুখের সঙ্গে বাংলাদেশের দুই সিনেমা
বিনোদন ডেস্ক :
০৩ নভেম্বর, ২০১৯ ১৩:৩৮:১৩
প্রিন্টঅ-অ+


এবারের কলকাতার চলচ্চিত্র উৎসব হতে যাচ্ছে বিতর্কিত এক আয়োজন। গুণী মানুষে ভরপুর ইন্ডাস্ট্রিতে সবাইকে পাশ কাটিয়ে নির্মাতা রাজ চক্রবর্তীকে উৎসবের চেয়ারম্যান করায় তুমুল সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। জানা গেছে, রাজনৈতিক মহলের প্রভাব খাটিয়েই রাজ এই পদে আসীন হয়েছেন।

তবে আয়োজনকে প্রাণবন্ত ও রঙিন করে তুলতে চেষ্টার ত্রুটি রাখছেন না ‘প্রেম আমার’খ্যাত এই নির্মাতা। তার বলয়ের লোকজন তাকে বাহবাও দিচ্ছেন, প্রেরণা ও পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।

সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ৮ নভেম্বর নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। চলবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। ২৫তম এই চলচ্চিত্র উৎসবে উদ্বোধনী ছবি হিসেবে দেখানো হবে সত্যজিৎ রায়ের ছবি ‘গুপি গাইন, বাঘা বাইন’। কারণ কালজয়ী এই সিনেমাটির এ বছর ৫০তম বর্ষপূর্তি। ছবিটি থ্রিডি-তে দেখানো হবে।

আর প্রতিবারের মতো এবারও কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশ থেকে দুটি ছবি অংশ নিচ্ছে। একটি হলো নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু পরিচালিত ‘আলফা’, অন্যটি এন রাশেদ চৌধুরীর ‘চন্দ্রাবতীর কথা’।

দার্শনিক ভঙ্গিতে রাষ্ট্রের নানা স্পর্শকাতর বিষয়কে ছুঁয়ে গিয়েছে ‘আলফা’ সিনেমার গল্প। এতে কেন্দ্রীয় দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন আলমগীর কবির ও দোয়েল ম্যাশ।

অন্যদিকে বাংলাদেশের প্রথম নারী কবি চন্দ্রাবতী। ময়মনসিংহ গীতিকার জন্য বাংলা সাহিত্যে দারুণ জনপ্রিয় তিনি। ষোড়শ শতকের প্রতিভাবান ও সংগ্রামী এই নারীকে নিয়েই নির্মিত হয়েছে ‘চন্দ্রাবতীর কথা’। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দোয়েল ম্যাশ।

২৫তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব সামনে রেখে শুক্রবার (১ নভেম্বর) কলকাতার শিশির মঞ্চে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে উৎসব কমিটি। উপস্থিত ছিলেন কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব কমিটি চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তী, কমিটির দুই সদস্য অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক। ছিলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসও।

সেখানে জানানো হয়, উৎসবে দেখানো হবে মোট ৯২টি শর্ট ফিল্ম ও ৫৭টি ডকুমেন্টারি। রয়েছে মোট ৭৬টি ভারতীয় ছবি।

সংবাদ সম্মেলনে উৎসব কমিটির পক্ষ থেকে রাজ চক্রবর্তী বলেন, ‘গোটা বিশ্ব থেকে ৭৬টি দেশের প্রায় আড়াই হাজার চলচ্চিত্র জমা পড়েছে। তার মধ্যে ছবি বাছাই ছিল কঠিন কাজ। বিদেশি চলচ্চিত্র বিভাগে সেরা ছবির জন্য পুরস্কারমূল্য ৫১ লক্ষ টাকা। পরিচালকের সম্মানমূল্য ২১ লক্ষ টাকা।’

কমিটির বক্তব্য, পৃথিবীর নিরিখে সম্ভবত কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবেই একমাত্র এই পরিমাণ পুরস্কার মূল্য দেওয়া হয়।

জানা গেছে, কলকাতা উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন অমিতাভ বচ্চন, জয়া বচ্চন, মহেশ ভাট, রাখি গুলজার, গৌতম ঘোষ, অ্যান্ডি ম্যাকডোয়েল, মাধবী মুখোপাধ্যায়সহ ভারতের নন্দিত সব তারকারা। সবার মধ্যমণি হয়ে থাকবেন কলকাতার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর শাহরুখ খান।



আমার বার্তা/০৩ নভেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন