শিরোনাম :

  • বাংলাদেশি হজকর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত এপ্রিলেই আসছে ঘূর্ণিঝড়-বন্যা ও তীব্র তাপপ্রবাহ লন্ডনের হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটের আশঙ্কা, আতঙ্কে করোনা রোগীরা পরজীবীনাশক ওষুধে মাত্র ৪৮ ঘণ্টায় মরবে করোনা
সিনেমার দুর্দিনে ৩ ছবির মুক্তি
বিনোদন ডেস্ক :
০৭ মার্চ, ২০২০ ১১:০৮:৪৫
প্রিন্টঅ-অ+


এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ধুঁকছে ঢাকাই সিনেমা। ভালো ও মৌলিক গল্পের অভাব, ভালো নির্মাণের অভাব, হল নিয়ে নোংরা রাজনীতি, তারকায় তারকায় বিভেদ, পরিচালক-প্রযোজক-শিল্পীসহ কলাকুশলীদের মধ্যে সমন্বয়হীনতা, সিনেমা বাজারজাতকরণের দুর্বলতা, শ্রুতিমধুর গানের অভাব; নানা সংকটে জর্জরিত এই শিল্পটি বর্তমানে লাইফ সাপোর্টে আছে বলা চলে।

৬ ঋতুর বছরে ৬টি ব্যবসা সফল ছবির দেখাও পাওয়া যায় না ইন্ডাস্ট্রি। একের পর এক সিনেমাহল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বাংলা সিনেমার এমন দুর্দিনে গতকাল শুক্রবার সারাদেশে মুক্তি পেয়েছে ৩ টি সিনেমা।

এর মধ্যে একটি হলো শাকিব খান ও নুসরাত ফারিয়া জুটির প্রথম ছবি ‘শাহেনশাহ’, আনিসুর রহমান মিলন অভিনীত ‘চল যাই’ ও নুসরাত ইমরোজ তিশা ও কলকাতার পরমব্রত অভিনীত ‘হলুদবনি’।

শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত শাহেন শাহ সিনেমাটিতে শাকিব খানের বিপরীতে প্রথমবার জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া ও অভিনেত্রী রোদেলা জান্নাত। গত বছরের ১২ মার্চ সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছিল ‘শাহেনশাহ’।

অনেকবার পরিবর্তন করা হয়েছে ছবির মুক্তির তারিখ। অবশেষে গতকাল ৬ মার্চ হঠাৎ করেই নিরবে মুক্তি পেল ‘শাহেনশাহ’। শোনা যাচ্ছে এই চলচ্চিত্রকে কেন্দ্র করে খুলেছে বন্ধ থাকা ৫০টি মতো সিনেমা হল। ছবিটি প্রযোজনা করেছে শাপলা মিডিয়া। শাপলা মিডিয়ার ব্যবস্থাপক বাদল জানান, দেশের ১২০টি সিনেমা হলে চলছে ছবিটি।

ইমপ্রেস টেলিফিল্মের যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘হলুদবনি’ মুক্তি পেয়েছে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্স ও যমুনা ব্লকবাস্টারে। ২০১৭ সালে নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিলো বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনার এ ছবিটি। এতে তিনটি প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের নুসরাত ইমরোজ তিশা, কলকাতার পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও পাওলি দাম।

সুকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘হলুদবনি’ উপন্যাস অবলম্বনে ছবিটি পরিচালনা করেছেন যৌথভাবে তাহের শিপন এবং ভারতের মুকুল রায় চৌধুরী। এর চিত্রনাট্য লিখেছেন পদ্মনাভা দাশগুপ্ত।

গতকাল শুক্রবার আরও মুক্তি পেয়েছে আনিসুর রহমান মিলন অভিনীত সিনেমা ‘চল যাই’। এই সিনেমায় মিলনের সঙ্গে এতে অভিনয় করেছেন একঝাঁক তরুণ অভিনয়শিল্পী। মাসুমা রহমান তানি পরিচালিত এই সিনেমাটি মূলত কয়েকজন তরুণ-তরুণীর দিশা খুঁজে পাওয়ার গল্প।

এ গল্পে নিবিড়ভাবে এসেছে মুক্তিযুদ্ধ, যে যুদ্ধের বাতিঘর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। খালিদ মাহবুব তূর্য্যর গল্প ও চিত্রনাট্যে ‘চল যাই’ সিনেমায় আরো অভিনয় করেছেন তাসনুভা তিশা, লুসি তৃপ্তি গোমেজ, হুমায়রা হিমু, সাব্বির হাসান, হৃতিকা ইসলাম, নাভিদ মুনতাসির, শিশুশিল্পী শরীফুল প্রমুখ। এন ইনিশিয়েটিভ প্রযোজিত সিনেমাটির কনটেন্ট পার্টনার হিসেবে রয়েছে বাংলাঢোল।

সিনেমার দুর্দিনে একসঙ্গে ৩ ছবির মুক্তিতে আশার আলো ফুটেছে সিনেমা ইণ্ডাস্ট্রীতে। কিন্তু প্রতি সপ্তাহে এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকলেই হয়! সিনেমার সুদিনের অপেক্ষায় পথ চেয়ে আছে সিনেমাপ্রেমীরা। একসঙ্গে তিন সিনেমার মুক্তি যেনো ঝোড়ো হাওয়ার মধ্যে হঠাৎ বিজলি বাতি জ্বলে ওঠার মতো। তবে সিনেমাপ্রেমীদের স্বপ্ন এমন বিজলি বাতি নয়, নিয়মিত নতুন নতুন সফল সিনেমার প্রতীক্ষায় আছেন সবাই। হয় তো একদিন সত্যিই বদলে যাবে ইণ্ডাস্ট্রী। এখন শুধু সেই দিনের প্রতীক্ষা।



আমার বার্তা/০৭ মার্চ ২০২০/জহির


আরো পড়ুন