শিরোনাম :

  • তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী উহান থেকে ২৩ বাংলাদেশিকে নেয়া হয়েছে দিল্লিতে রাজধানীতে ভবনের গ্যারেজে আগুনে শিশুসহ নিহত ৩ নগরের গৃহহীন মানুষের আবাসন সংকটের সমাধান জরুরি
বিশ্বের ১০ বিস্ময়কর সুইমিং পুল
আমার বার্তা ডেস্ক :
০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১২:০১:৪৮
প্রিন্টঅ-অ+


সুইমিং পুল শব্দটা ক্ষেত্র বিশেষে বেশ ‘বিলাস বহুল’৷ তবে সুইমিং পুল ঠিক কেমন হয়? অনেকে বলে পুকুরের থেকেও ছোট বা অনেকে আবার বলে ছোট বাঁধানো জায়গায় পানিভর্তি করে রাখা। বিশ্বজুড়ে এমন কতগুলো পুল আছে যা সত্যিই বিস্ময়ের!

রেঠি রাহ: সাদা বালি, প্রবাল দিয়ে তৈরি প্রাকৃতিক পুল এটি। প্রবালের প্রাচীর সমুদ্র থেকে আলাদা করে দিয়েছে এই পুলকে। বর্তমানে মালদ্বীপের রেঠি রাহ হোটেলের মালিকানায় রয়েছে এই পুলটি।

ইনফিনিটি পুল: সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে-তে একটি বিলাসবহুল হোটেলের ৫৭ তলায় রয়েছে এই পুলটি। মাথার উপরে আকাশের নীল রং পুলের জলটাকেও নীলাভ করে তুলেছে। পুল থেকে মেরিনা বে-র সূর্যাস্ত দেখা যায়।

উবাদ হোটেল: মেরিনা বে থেকে যদি সূর্যাস্ত দেখে মন না ভরে, তাহলে চলে আসতে পারেন উবাদ হোটেলের। ইন্দোনেশিয়ার বালিতে অবস্থিত এই হোটেলের পুল বিশ্বের অন্যতম মনে গেঁথে যাওয়া পুল। বৃষ্টি অরণ্যের উপরে এই হোটেলের দোতলা পুল পাবেন আপনি।

গোল্ড এনার্জি পুল: ঠিক যেন চোখ ঝলসানো ব্যাপার। পুলের জলের দিকে তাকালে ঝলসে উঠবে আপনার চোখ। সোনার মতো ঝকঝকে তার জল। তিব্বতের লাসা শহরে সেন্ট রেগিস হোটেলে রয়েছে এই পুলটি। পুলটির নীচে ১৪ ক্যারাটের সোনার টাইলস বিছানো রয়েছে। তাই জলেও তার প্রতিফলন হয়েছে।

ওবেরয় উদয়ভিলা: রাজস্থানের উদয়পুরে রয়েছে এই রাজকীয় ভিলা। ভিলার বাইরের দিকে রয়েছে বিশালাকার উন্মুক্ত পুল। পুলে সাঁতার কাটতে কাটতেই উপভোগ করতে পারবেন চারপাশের প্রকৃতি।

ভায়োলিন সুইমিং পুল: মিউজিসিয়ানদের অন্যতম পছন্দের এই পুলটি। তার একমাত্র কারণ আকার। ঠিক একটা আস্ত ভায়োলিনের মধ্যে ডুব দেওয়া যাবে। নিউ ইয়র্কের এই সুইমিং পুলটি ব্যক্তিগত। এক ব্যাঙ্কার এটি বানিয়েছেন।

কেভ পুল: গ্রিসের স্যান্টোরিনি ভীষণই জনপ্রিয় একটা সামার ডেস্টিনেশন। আর এই সামার ডেস্টিনেশনের সবচেয়ে আকর্ষণীয় হল কেভ পুল। এটা আসলে পাহাড়ের নীচে বা বলতে পারেন গুহার মধ্যে তৈরি হওয়া প্রাকৃতিক সুইমিং পুল। বাইরের তাপমাত্রা যতই বাড়ুক না কেন, এই পুলের জল সবসময়ই হিম-শীতল।

লাইব্রেরি পুল: এই পুলের জলের রং একেবারেই আলাদা। গাঢ় লাল। তাইল্যান্ডের কো সামুইয়ে অবস্থিত একটি হোটেলে এই পুল রয়েছে। কমলা, হলুদ এবং লাল মোজাইকের কারণে পুলের জলের রং সম্পূর্ণ লাল দেখায়।

ক্যামব্রিয়ান পুল: চারপাশে বরফে ঢাকা পাহাড়। আর মাঝে রয়েছে এই পুল। সুইজারল্যান্ডের ক্যামব্রিয়ানের এই পুল সত্যিই বিস্ময়। চারপাশে যতই বরফ থাকুক না কেন, পুলের জল কিন্তু সারা বছরই উষ্ণ থাকে।

দ্য সরোজিন খাও লাক: থাইল্যান্ডের খাও লাকে রয়েছে দ্য সরোজিন হোটেল। পর্যটকদের জনপ্রিয় গন্তব্য হয়ে উঠেছে এই হোটেল। কারণ অবশ্যই অসম্ভব প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর তার পুল।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা



আমার বার্তা/০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০/জহির


আরো পড়ুন