শিরোনাম :

  • আজ প্রধানমন্ত্রী ৭ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন তিনটি সংসদীয় স্থায়ী কমিটি পুনর্গঠন বিমানে এল ২২৫টি অস্ট্রেলিয়ান গরু সৌদি থেকে ফিরছেন নির্যাতনের শিকার সেই সুমি অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের নতুন সভাপতি ওয়াটসন
লাউ খাওয়ার উপকারিতা
আমার বার্তা ডেস্ক :
০২ জুলাই, ২০১৯ ১১:১৫:১২
প্রিন্টঅ-অ+


বাজারে লাউ প্রায় বারমাসই পাওয়া যায়। লাউ ভাজি, ঝোল, মোরব্বা হিসেবে রান্না করে খাওয়া হয়। এর পাশাপাশি লাউয়ের খোসাও ভাজি করে খাওয়া যায়। সুস্বাদু এই সবজিটি আমাদের শরীরের জন্য বেশ উপকারী। শরীরকে ভেতর থেকে ঠান্ডা রাখতে লাউয়ের ভূমিকা রয়েছে।

প্রতি ১০০ গ্রাম লাউয়ে আছে কার্বোহাইড্রেট- ২.৫ গ্রাম, প্রোটিন- ০.২ গ্রাম, ফ্যাট- ০.৬ গ্রাম, ভিটামিন-সি- ৬ গ্রাম, ক্যালসিয়াম- ২০ মি.গ্রা.,ফসফরাস- ১০ মি.গ্রা.,পটাশিয়াম- ৮৭ মি.গ্রা., নিকোটিনিক অ্যাসিড- ০.২ মি.গ্রা। এছাড়াও লাউয়ে রয়েছে খনিজ লবণ, ভিটামিন বি-১, বি-২, আয়রন। এর প্রত্যেকটি উপাদান মানবদেহের জন্য প্রয়োজন।

লাউ খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে। লাউয়ের মূল উপাদান যেহেতু পানি তাই লাউ শরীর ঠান্ডা করে। গরমের জন্য আমাদের শরীর থেকে পানি বেরিয়ে যায় ঘাম হয়ে। লাউ শরীরে পানির কমতি পূরণ করতে সাহায্য করে। গরমের কারণে গরমকালে হিট স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এসময় নিয়মিত লাউ খেলে হিট স্ট্রোক হওয়ার ভয় থাকে না।

লাউ একটি কম ক্যালোরি সম্পন্ন ডায়েট। ওজন কমাতে চাইলে খাবার তালিকায় লাউ রাখুন। লাউয়ে ৯৬% পানি থাকে। থাকে প্রচুর ডায়েটারি ফাইবার। ক্যালোরি কম থাকায় লাউ খেলে ওজন কমে।

গরমে নানা কারণে পেটের সমস্যা দেখা দেয়। বিশেষ করে হজমের সমস্যা হয়। লাউ হজমে সাহায্য করে। লাউয়ে থাকে প্রচুর দ্রবণীয় ও অদ্রবণীয় ফাইবার। দ্রবণীয় ফাইবার সাহায্য করে খাবার হজম করতে। হজম ও হজম সংক্রান্ত সমস্যা থেকে বাঁচতে দ্রবণীয় ফাইবার সহায়তা করে। প্রতিদিন লাউ খেলে অ্যাসিডিটি ও কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার সমাধান হয়।

লাউয়ে আছে প্রচুর ভিটামিন ও প্রোটিন। ত্বকের জন্য এই দুই খুবই প্রয়োজনীয়। লাউ খেলে ত্বক ভেতর থেকে ভালো থাকে। গরমকালে রোদেরে জন্য ত্বক পুড়ে যায় শুষ্ক হয়ে যায়। তাই লাউ এই সমস্যা থেকে ত্বককে ভালো রাখে। লাউ খেলে হজম ভালো হয়। পেট পরিষ্কার থাকে ফলে ব্রণও হওয়ার সুযোগ কম থাকে। মুখ পরিষ্কার ও উজ্জ্বল দেখায়। লাউয়ের জুস খাওয়া খুবই ভালো।

গরমে শরীরের কোষে যায় পানির অভাবে। প্রসাবের সমস্যা দেখা দেয়। শরীরে পানি কম মাত্রায় থাকায় প্রসাবের সময় জ্বালা করে। এই সমস্যা থেকে লাউ সাহায্য করে মুক্ত হতে। পানি কমের কারণে প্রসাব হলুদ হয়। শরীরের জন্য যা খুবই ক্ষতিকারক। লাউে প্রচুর পরিমাণ পানি থাকায় লাউ খেলে শরীরে সেই পানি যায়। যা আমাদের শরীরের পানির ঘাটতি পূরণ করে। ফলে প্রসাবের সমস্যা দূর হয়। শরীর ঠান্ডা থাকে।

জ্বর, ডাইরিয়া, আরও সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। লাউ নিয়মিত খেলে এই সমস্যা থেকে দূরে থাকা যায়। কিডনির সমস্যা হলে লাউ খাওয়া ভালো। পেটের সমস্যার থেকে সমাধানে লাউয়ের ভূমিকা রয়েছে। গরমকালে সুস্থ ও সতেজ থাকতে চাইলে নিয়মিত লাউ খান।



আমার বার্তা/০২ জুলাই ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন