শিরোনাম :

  • আজ শুরু হচ্ছে মহাকালের ‘বাংলা নাট্যোৎসব’ সোনাদিয়ায় শিল্পকারখানা স্থাপন না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিক্রিই হলেন না সাকিব-গেইল-মালিঙ্গারা রাজধানীতে আনসার আল ইসলামের চার সদস্য গ্রেফতার কালিদাস কর্মকারের মরদেহে শ্রদ্ধা চারুকলায়
চিকুনগুনিয়ার ঘরোয়া চিকিৎসা
আমার বার্তা ডেস্ক :
২০ জুলাই, ২০১৯ ১১:৪০:৫৩
প্রিন্টঅ-অ+


মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গুর মতো চিকুনগুনিয়াও বর্তমানে বেশ ভোগান্তিতে ফেলেছে নগরবাসীকে। চিকুনগুনিয়ার নির্দিষ্ট কোনো চিকিৎসা নেই। তবে কিছু ঘরোয়া টিপসে চিকুনগুনিয়ার কারণে শরীর ও জয়েন্টে ব্যথা থেকে নিষ্কৃতি পাওয়া যেতে পারে।

* শরীর ও জয়েন্টের যে জায়গায় ব্যথা করে, কয়েক টুকরো বরফ একটি পাতলা তোয়ালে দিয়ে মুড়িয়ে সেখানে ৩-৫ মিনিট ধরে রাখুন। ব্যথা থাকলে দিনে একাধিকবার এই পদ্ধতি অবলম্বন করুন। তবে সরাসরি চামড়ায় বরফ ধরে রাখলে কোষ নষ্ট হয় যেতে পারে, সেটা খেয়াল রাখতে হবে।

* কুসুম গরম তেল হাতে নিয়ে শরীরে যেসব জায়গা বা জয়েন্ট ব্যথা করছে সেখানে হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন।

* চিকুনগুনিয়ার জন্য হলুদ মেশানো দুধ খুব উপকারী। শরীরের ব্যথা সারাতে গরম দুধের সঙ্গে আধা চা-চামচ হলুদ খুব ভালো করে মিশিয়ে পান করুন। দিনে দু’বার এই হলুদ মেশানো গরম দুধ খেতে পারেন।

* শরীরের ব্যথা সারাতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আদার উপকারিতাও অনেক। তাই দিনে একাধিকবার আদা মেশানো চা খেলে উপকার পাবেন।

* চিকুনগুনিয়ার ব্যথা সারাতে রসুন খাওয়া বেশ উপকারী। রসুন মেশানো তেল শরীরের ব্যথা আক্রান্ত জায়গায় লাগালেও উপকার পাওয়া যাবে।

* চিকুনগুনিয়ার সময় ডাবের পানি সবচেয়ে উপকারী পানীয়। শরীরের দুর্বলতা কাটাতে দিনে ৩/৪ গ্লাস ডাবের পানি খেতে পারেন।

* কয়েকটা আঙুর খেয়ে এক কাপ দুধ পান করুন। চিকুনগুনিয়ার জ্বর ও ব্যথা সারাতে এই কম্বিনেশন কার্যকর।

* ৮/১০টি তুলসির পাতা আধা লিটার পানির মধ্যে নিয়ে ফুটাতে হবে। পানি অর্ধেক হয়ে গেলে তা নামিয়ে দিনে কয়েকবার তা পান করতে হবে। চিকুনগুনিয়ার জ্বর দ্রুত সারাতে এই প্রক্রিয়া উপকারী।

* পেঁপের ৭/৮টি পাতা নিয়ে সেসব পাতার ডাটাগুলো ছাড়িয়ে পানির সঙ্গে মিশিয়ে খুব ভালো করে পেস্ট তৈরি করুন। এরপর দিনে ২ টেবিল চামচ করে খেলে উপকার পাবেন।

* চিকুনগুনিয়া ভাইরাস সংক্রমণ থেকে দ্রুত সেরে উঠতে সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তাই বিশ্রাম খুব জরুরি।

কী খাবেন ও খাবেন না : চিকুনগুনিয়ার সময় ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার বেশি খাওয়ার চেষ্টা করুন। মাছ, বাদাম এসব খাবার খেলে উপকার পাবেন। প্রচুর পানি, সরবত, ওরস্যালাইন, ডাবের পানি পান করতে হবে। চা, কফি, ঝাল, ভাজাপোড়া খাবার, সিগারেট, অ্যালকোহল থেকে দূরে থাকতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শে জ্বর, বমি ও ব্যাথানাশক ওষুধ খেতে পারেন।



আমার বার্তা/২০ জুলাই ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন