শিরোনাম :

  • এসএসসির ফল প্রকাশ আজ ‘ঐতিহাসিক’ যাত্রায় মহাকাশের পথে স্পেসএক্স-নাসার রকেট করোনার ‘নতুন কেন্দ্র’ লাতিন আমেরিকায় মৃত্যু ৫০ হাজার ছাড়াল আক্রান্ত সন্দেহে মাকে বাড়িতে ঢুকতে দিল না ছেলে
এই সময়ে কাঁচা বাজার বেশিদিন সংরক্ষণ করবেন যেভাবে
আমার বার্তা ডেস্ক :
০৮ এপ্রিল, ২০২০ ১১:৪২:৫২
প্রিন্টঅ-অ+


করোনাভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবনযাপন। আগে যেখানে প্রতিদিনের বাজার প্রতিদিন করতেন, সেখানে এখন বাজার তো দূরে থাক, বাইরে বের হওয়াই মুশকিল। নিজেকে এবং আশেপাশের সবাইকে সুরক্ষিত রাখতে গৃহবন্দি থাকতেই হবে। তাই বলে বাজার না করেও তো থাকা যায় না। আবার একসঙ্গে অনেক খাবার জমিয়ে রাখাও মুশকিল। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলো বেশি করে কিনলেও সংরক্ষণ করা নিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন অনেকে।

কীভাবে সেসব সংরক্ষণ করবেন, তা না জানলে জিনিসটি ব্যবহারও করতে পারবেন না, অর্থও অপচয় হবে। ফ্রিজে রাখুন বা বাইরে, প্রতিটা জিনিসেরই সংরক্ষণ করার কিছু নিয়মকানুন আছে। জেনে নিন-

দুধ: ডিপ ফ্রিজের নিচে যে ট্রে থাকে, তাতে রাখুন দুধের প্যাকেট। দুধ পাঁচ দিন টাটকা রাখতে পারে এই ট্রে। পুরনো মডেলের ফ্রিজ হলে সরাসরি ডিপ ফ্রিজেও ভরে রাখতে পারেন দুধের প্যাকেট। তবে দুধ কেনার আগে অবশ্যই এর এক্সপায়ারি ডেট দেখে কিনবেন।

পাউরুটি: দু’-এক দিনের জন্য পাউরুটি টাটকা রাখতে চাইলে বাইরের তাপমাত্রায় রাখুন। তবে বেশি দিনের জন্য ভালো রাখতে চাইলে ফ্রিজে মজুত রাখুন। খুব গরমের দিনে ফ্রিজে রাখুন পাউরুটি। সাধারণ দিনে দিন দু’য়েকের জন্য রাখলে বাইরের তাপমাত্রায় রাখুন।প্যাকেট থেকে খুলে ব্রাউন পেপারে মুড়ে বা ব্রেড বক্সেই মজুত রাখুন। এতে মেয়াদ না ফুরনো অবধি টাটকা থাকে তা। ব্রাউন পেপারে মুড়ে রাখলে খুব শক্ত করে প্যাকেটের মুখ বাঁধুন।

ক্যাপসিকাম, টমেটো ও ব্রোকলি: দিন চারেকের জন্য রাখতে চাইলে বাইরেই রাখতে পারেন। তবে দিন সাতেকের জন্য সংরক্ষিত করতে চাইলে মানতে হবে কিছু নিয়ম। ক্যাপসিকাম ও ব্রোকলিকে মাঝারি টুকরো করে কেটে নিন। টমেটোকে চার টুকরো করে কেটে নিতে হবে। এরপর একটি প্লেটে এই কাটা সবজিগুলো এমনভাবে রাখুন যেন একটার উপর একটা টুকরো না থাকে। প্লেটটি চাপা দিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। ভালো থাকবে সবজি।

কাঁচা মরিচ: কাঁচা মরিচ ভালো রাখতে চাইলে একটি কাগজে মুড়ে ফ্রিজে রেখে দিন। তবে এভাবেও দিন চারেকের বেশি ভালো রাখা কঠিন। কাঁচা মরিচের সঙ্গে লবণ মিশিয়ে তাকে মিক্সিতে বেটে নিলে সংরক্ষণ করা সহজ। কোনো এয়ারটাইট কৌটোয় এটি রেখে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিলে টাটকা থাকবে দীর্ঘদিন।

গাজর: ছোট ছোট টুকরো করে কেটে, ফুটন্ত গরম পানিতে ২ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এবার ঠান্ডা পানিতে ডুবিয়ে রাখুন মিনিট পাঁচেক। এরপর একটি প্লেটে কাটা টুকরো পর পর সাজিয়ে ফ্রিজে রাখতে হবে। এক্ষেত্রেও লক্ষ রাখতে হবে, যেন একটার উপর আর একটা টুকরো না থাকে।

পালং শাক: ফুটন্ত গরম পানিতে দু’মিনিট ফুটিয়ে অথবা ব্লাঞ্চ করে, ঠান্ডা পানিতে ডুবিয়ে রাখুন। এরপর ভালো করে পানি নিংড়ে, শাক কেটে একটি এয়ারটাইট কৌটোয় ভরে ডিপ ফ্রিজে রাখুন। ভালো থাকবে দিন সাতেক।

ধনে পাতা: ভালো করে ধুয়ে, পানি শুকিয়ে নিতে হবে প্রথমেই। এরপর অল্প পরিমাণ পাতা ভাগ করে কয়েকটা পেপার টাওয়েল অথবা খবরের কাগজে মুড়ে ভাগে ভাগে প্যাক করতে হবে।

আলু: ফ্রিজে রাখার ভুল করবেন না। তার চেয়ে ফ্রিজের নিচে যে বাড়তি খাপ দেয়া থাকে তাতে আলু রাখুন। বাজারের ঝুড়িতে খোলা হাওয়াতেও রাখতে পারেন তা। তবে অন্যান্য সবজির সঙ্গে না রেখে আলুর জন্য আলাদা একটা ঝুড়ি বরাদ্দ করুন। তাতে ভালো থাকবে বেশিদিন।



আমার বার্তা/০৮ এপ্রিল ২০২০/জহির


আরো পড়ুন