শিরোনাম :

  • নিজেকে বিজয়ী করতে যা করতাম এখনও তা-ই করব : আ জ ম নাছির অস্ত্র ঠেকাতে বিমানবন্দরে বসছে অত্যাধুনিক বডি স্ক্যানার সরকার ও জনগণের বন্ধন যত বেশি মজবুত হবে গণতন্ত্র তত টেকসই হবে : রাষ্ট্রপতি কাশ্মীর ইস্যুতে জাতিসংঘের দেয়া প্রস্তাব ভারতের নাকচ
বিশেষ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী দুটি বোয়িং ৭৭৭ বিমান ভারতে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
০৬ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:৩২:৩১
প্রিন্টঅ-অ+


মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতোই নিরাপত্তা পেতে যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কারণ আগামী বছরের মাঝামাঝিতেই বিশেষ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী দুটি বোয়িং ৭৭৭ বিমান ভারতে আসবে। প্রধানমন্ত্রী মোদির নিরাপত্তার জন্যই ওই বিমান দুটি আনা হচ্ছে। তবে ওই বিমানে মোদি ছাড়াও ভারতের রাষ্ট্রপতি এবং উপরাষ্ট্রপতি চড়তে পারবেন।

হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই বিমানের বিষয়ে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হচ্ছে। বিমান দু'টি নাম হবে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। বিমান দুটিতে থাকবে বিশেষ কনফিগারেশন। অফিস স্পেশ ছাড়া মিটিং রুমও থাকবে সেখানে। থাকবে বিশেষ যোগাযোগ ব্যবস্থাও।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট যেভাবে এয়ার ফোর্স ওয়ান ব্যবহার করেন ঠিক তেমনই এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমানে থাকবে সেল্ফ প্রোটেকশন সুইট (এসপিএস)। এই এসপিএস সুরক্ষা ব্যবস্থা অত্যন্ত উন্নত প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। এতে সব ধরনের উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার থাকবে।

এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমান শত্রুপক্ষের রাডার বিকল করে দিতে সক্ষম হবে। মিসাইলের গতিপথও বদল করে দেবে। বিমানের সতর্কতা এবং কাউন্টারমেজার সিস্টেমগুলোর জন্য পাইলটকে কোনো পদক্ষেপ নিতে হবে না। প্রয়োজন মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবেই সেটি কাজ করতে শুরু করবে।

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যবহারকারী বিমান প্রতিরক্ষা ভারতের হাতে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। এই বিমানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সম্ভাবনা আছে কিনা তা আগে থেকেই জানা যাবে। এ ধরনের বিমানের পেছনে খরচ হবে প্রায় ১৯ কোটি মার্কিন ডলার।



আমার বার্তা/ ০৬ অক্টোবর ২০১৯/রিফাত


আরো পড়ুন