শিরোনাম :

  • দেশের ১১ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা আগামী সপ্তাহে ভারতে ভেন্টিলেটর পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র বিকেলে ১১০ কিমি বেগে মুম্বাইয়ে আঘাত হানবে ‘নিসর্গ’ ভারতে করোনায় আক্রান্ত ২ লাখ ছাড়াল
ভারতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ১৯৪
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
২৯ মার্চ, ২০২০ ১০:৪৫:৫২
প্রিন্টঅ-অ+


ভারতে নতুন করে আরও ১৯৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ফলে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯ শতাধিক। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯১৮ এবং মারা গেছে ১৯ জন।

তবে পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার বলছে, ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯৮৭ এবং মারা গেছে ২৪ জন। অপরদিকে, চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৮৪ জন।

তবে শনিবার দেশটিতে নতুন করে ১৯৪ জনের আক্রান্তের বিষয়টি বেশ উদ্বেগজনক। এটাই দেশটিতে একদিনে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড। ইতোমধ্যেই করোনার বিস্তার ঠেকাতে দেশজুড়ে লকডাউন জারি রয়েছে।

গত মঙ্গলবার দেশজুড়ে তিন সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এতে বিপাকে পড়েছেন বিভিন্ন রাজ্য থেকে রাজধানীতে কাজের খোঁজে আসা শ্রমিকরা।

খাবারসহ নিত্যনতুন সংকটে পড়েছে বিভিন্ন রাজ্য থেকে আসা এসব লোকজন। এমন পরিস্থিতিতে তারা রাজধানী ছেড়ে বাড়ি ফিরতে চান। সবার চোখেমুখে উদ্বেগ-শঙ্কা, বাড়ি পৌঁছাতে পারবে কিনা। কিন্তু শনিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত তাদের বাড়ি ফেরার কোনো ব্যবস্থা হয়নি। অনেককে হাঁটা পথে যাত্রা বাড়ির পথে যাত্রা করতে দেখা গেছে।

লকডাউনের কারণে চার দিনে কার্যত স্তব্ধ নয়াদিল্লি। এমন পরিস্থিতিতে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়েছে রাজধানীতে কাজ করতে আসা এসব মানুষের। কাজ তো বন্ধ, দুবেলা খাবার জোগাড় করাও কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের জন্য। তাইতো বাড়ি ফেরা ছাড়া তাদের অন্য কোনো পথ বাকি নেই আর।

এমন পরিস্থিতিতে এসব শ্রমিক ও গৃহহীনদের জন্য অস্থায়ী বাসস্থান, খাদ্য, বস্ত্র এবং চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন রাজ্য সরকারকে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এদিকে উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার শ্রমিকদের জন্য এক হাজার বাসের ব্যবস্থা করেছে। অপরদিকে লকডাউন পরিস্থিতি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে টুইট করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।



আমার বার্তা/২৯ মার্চ ২০২০/জহির


আরো পড়ুন