শিরোনাম :

  • ঢাকায় বাড়তে পারে তাপমাত্রা করোনার ছোবলে এবার চলে গেলেন এসআই মোশাররফ সপ্তাহে তিন দিন ছুটির বিধান আসছে নিউজিল্যান্ডে পেরুতে একদিনেই আক্রান্ত প্রায় ৩ হাজার
ওষুধ পেয়ে মোদিকে মহান বললেন ট্রাম্প
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
০৮ এপ্রিল, ২০২০ ১৬:৩২:৫৩
প্রিন্টঅ-অ+


করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ম্যালেরিয়ানিরোধী হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইন ওষুধ দেয়া না হলে প্রতিশোধ নেয়া হবে বলে ভারতকে হুমকি দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইনের রফতানি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেয়ায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে 'মহান' এবং 'প্রকৃত ভালো মানুষ' বলে মন্তব্য করেছেন ট্রাম্প।

গুজরাটের তিনটি কারখানা থেকে হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইনের অন্তত ২ কোটি ৯০ লাখ ডোজ যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম ধাপে রফতানির প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর ট্রাম্পের সুরে এই বদল। যুক্তরাষ্ট্রে বুধবার পর্যন্ত নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তর সংখ্যা ৪ লাখ ও মৃত ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে।

ফক্স নিউজকে দেয়া স্বাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, আমি মিলিয়ন মিলিয়ন ডোজ হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইন কিনেছি... ২ কোটি ৯০ লাখের বেশি। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথা বলেছি। এই ওষুধের বেশিরভাগই ভারত থেকে এসেছে। ওষুধটি ছাড়া যায় কিনা সেব্যাপারে মোদিকে অনুরোধ জানিয়েছিলাম। তিনি মহান। তিনি আসলেই একজন ভালো মানুষ।

এর আগে, সোমবার হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইনের রফতানি নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রী মোদি অটল থাকলে তিনি এতে অবাক হবেন।

মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট বলেন, এটা তার সিদ্ধান্ত কিনা, আমি জানি না। তবে আমি জেনেছি যে, তিনি এটা অন্য দেশে রফতানি বন্ধ করেছেন। আমি গতকাল তার সঙ্গে কথা বলেছি এবং আমাদের দু'জনের খুবই ভালো আলোচনা হয়েছে। আমি তাকে বলেছি, সরবরাহের অনুমতি দেয়ার জন্য আমরা আপনার প্রতি কৃতজ্ঞ। তিনি যদি এটার অনুমতি না দিতেন, তাহলে পাল্টা প্রতিশোধমূলক পদক্ষেপ আসতো।

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে ম্যালেরিয়ানিরোধী হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইন ওষুধ ব্যবহারে ইতিবাচক ফল পাওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে করোনা রোগীদের ওপর ম্যালেরিয়ানিরোধী এই ওষুধের পরীক্ষা চালানো হচ্ছে।

বিশ্বে হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইনের মোট উৎপাদনের ৭০ শতাংশই ভারতে হয়। যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কোভিড-১৯ এর সম্ভাব্য প্রতিষেধক হিসাবে হাইড্রোক্সিক্লােরোকুইন শনাক্ত করেছে।

দেশে করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকায় গত ২৫ মার্চ ভারত প্রথমবারের মতো এই ওষুধের রফতানি বাতিল করে। তবে সংক্রমণ বিচার-বিশ্লেষণ করে কিছু কিছু দেশে রফতানি করা হতে পারে বলে সেই সময় জানানো হয়। মহামারির মানবিক দিক বিবেচনা করে ওষুধটির রফতানির অনুমতি দেয়া হবেও বলে জানায় ভারত সরকার।

যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয় বলছে, বুধবার পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৩৭৫ জন এবং মারা গেছেন ৮২ হাজার ১৪৫ জন।

সূত্র : এনডিটিভি।



আমার বার্তা/০৮ এপ্রিল ২০২০/জহির


আরো পড়ুন