শিরোনাম :

  • তাপমাত্রা বাড়বে ঢাকায়, কমবে কুয়াশা স্যামসাং চীন থেকে ভারতে ডিসপ্লে কারখানা সরিয়ে নিচ্ছে সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্ক, সম্পর্ক ভাঙলেই বলে ধর্ষণ : কিরন্ময়ী নায়েক দুই গাড়ির সংঘর্ষে রাজস্থানে নিহত ১০
চীন দারিদ্র্য বিমোচনের অনন্য মাইলফলকে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
২৯ নভেম্বর, ২০২০ ১২:৫৩:৫৩
প্রিন্টঅ-অ+


টানা পাঁচ বছর দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে অনন্য এক মাইলফলকে পৌঁছেছে চীন। চরম দারিদ্র্যপ্রবণ এলাকার তালিকা থেকে নাম কাটা গেছে দেশটির সবগুলো কাউন্টির। অর্থাৎ, চীনে এখন আর কেউ চরম দরিদ্র নেই।

বিশ্বের অন্যতম দারিদ্র্যপীড়িত দেশ হিসেবে বহু বছর ভুগতে হয়েছে চীনকে। এই লজ্জার হাত থেকে বাঁচতে চরম দারিদ্র্য নির্মূল হয়ে উঠেছিল চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য। তিনি ২০২০ সাল শেষ হওয়ার আগেই দেশ থেকে চরম দারিদ্র্য দূর করার শপথ করেছিলেন। আগামী জুলাইয়ে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির শততম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীকে সামনে রেখে একটি ‘পরিমিত সমৃদ্ধ সমাজ’ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন জিনপিং।

সাধারণত বছরে যাদের আয় ২ হাজার ৩০০ ইউয়ান বা ৩৫০ মার্কিন ডলারের কম, তাদের চরম দরিদ্র হিসেবে বিবেচনা করে চীনা সরকার।

গত ৪০ বছরে কৃষিপ্রধান অর্থনীতি থেকে দ্রুত নগরায়নের পথে এগিয়েছে চীন। এর ফলে গ্রাম্য সম্প্রদায়ের সংখ্যা ক্রমেই কমে এসেছে, হারিয়েছে কাজের ক্ষেত্র। এ পরিস্থিতিতে জিনপিংয়ের দারিদ্র্য বিমোচন নীতিতে গ্রামাঞ্চলের উন্নয়নে ব্যাপক গুরুত্ব দেয়া হয়। এর অংশ হিসেবে ২০১৪ সালে চীনের ৮৩২টি অনুন্নত কাউন্টি থেকে চরম দারিদ্র্য দূরীকরণের কাজ শুরু করে বেইজিং।

গত সোমবার চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা শিনহুয়া ঘোষণা দিয়েছে, দারিদ্র্যপ্রবণ তালিকা থেকে দেশটির দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলীয় গুইঝু প্রদেশের অবশিষ্ট নয়টি কাউন্টির নামও মুছে দেয়া হয়েছে। ফলে দেশটিতে চরম দারিদ্র্যের শিকার আর কোনও এলাকা থাকল না।

রাষ্ট্রপরিচালিত টেলিভিশন সিজিটিএন তাদের ওয়েবসাইটে অত্যন্ত খুশি খবর হিসেবে বলেছে, চীন তাদের নির্ধারিত সময়সীমার একমাস আগেই চরম দারিদ্র্য দূর করতে সক্ষম হয়েছে।

মঙ্গলবার চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ২০২০ সালের মধ্যে চরম দারিদ্র্য বিমোচনের লক্ষ্য অর্জন করেছে চীন। দুঃসাধ্য এই ফলাফল খুবই সন্তোষজনক।

তবে, দারিদ্র্য বিমোচনে চীনের এমন অনন্য মাইলফলক অর্জন নিয়ে এখনও বেশ কিছু গণমাধ্যম এবং বিশেষজ্ঞের মনে সন্দেহ থেকে গেছে।

রাষ্ট্রপরিচালিত ট্যাবলয়েড গ্লোবাল টাইমস এক বিশেষজ্ঞের বক্তব্য উল্লেখ করে বলেছে, চীন সরকারকে দারিদ্র্য বিমোচনের বিষয়টি ব্যাপকভাবে পর্যালোচনা করে ২০২১ সালের প্রথমার্ধে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা দরকার।

শিনহুয়ারই আরেক প্রতিবেদনে চীনের দারিদ্র্য বিমোচন কার্যালয়ের উপ-পরিচালক শিয়া জেংশেংয়ের বক্তব্য হিসেবে বলা হয়েছে, দেশটিতে দারিদ্র্য সমাপ্তির কাজ এখনও পুরোপুরি শেষ হয়নি।

জেংশেং জানিয়েছেন, প্রথমত আচমকা পরিদর্শন এবং আদমশুমারি করতে হবে। তারপর সকল মানদণ্ড পূরণ করা গেলে কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে ‘দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধজয়’ ঘোষণা করা হবে।

সূত্র: সিএনএন





আমার বার্তা/২৯ নভেম্বর ২০২০/জহির



 


আরো পড়ুন