শিরোনাম :

  • তাপমাত্রা বাড়বে ঢাকায়, কমবে কুয়াশা স্যামসাং চীন থেকে ভারতে ডিসপ্লে কারখানা সরিয়ে নিচ্ছে সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্ক, সম্পর্ক ভাঙলেই বলে ধর্ষণ : কিরন্ময়ী নায়েক দুই গাড়ির সংঘর্ষে রাজস্থানে নিহত ১০
উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ১৯ বছরের কলেজছাত্রী
২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:৩৭:৪৬
প্রিন্টঅ-অ+


অনিল কাপুরের ‘নায়ক’ সিনেমার কথা মনে আছে? একদিনের জন্য মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন শিবাজি রাও। আর চেয়ারে বসেই আপামর রাজ্যবাসীর মুশকিল আসান করে নিমেষের মধ্যে হয়ে উঠেছিলেন সকলের নায়ক। তবে আর পর্দায় নয়, এবার বাস্তবে হতে চলেছে ‘নায়ক’ ছবির রিমেক। মুখ্য চরিত্রে সৃষ্টি গোস্বামী। মাত্র ১৯ বছর বয়সে কীভাবে পেলেন এই গুরুদায়িত্ব?

রোববার (২৪ জানুয়ারি) বেলা ১২টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত ভারতের উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব সামলাবেন হরিদ্বারের বাসিন্দা সৃষ্টি। জাতীয় শিশুকন্যা দিবসে তাকে এই সুযোগ করে দিয়েছে রাজ্যের সরকার। আজ উত্তরাখণ্ডে বসবে বিশেষ শিশু বিধানসভা অধিবেশন। যেখানে একাধিক সরকারি প্রকল্পের মূল্যায়ন করবেন সৃষ্টি। রাজ্য সরকারের বিভিন্ন আধিকারিকের সঙ্গেও বিশদে আলোচনা করবেন তিনি। খবর এইসময়ের।

সূত্রের খবর, উত্তরাখণ্ডের গ্রীষ্মকালীন রাজধানী থেকে রাজ্য পরিচালনা করবেন সৃষ্টি গোস্বামী। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত পরিচালিত সরকারের নানা প্রকল্প নিয়ে পর্যালোচনা করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এই তরুণীকে। তার মধ্যে রয়েছে ‘অটল আয়ুষ্মান প্রকল্প’, ‘স্মার্ট সিটি প্রকল্প’, ‘পর্যটন বিভাগের হোমস্টে প্রকল্প’ এবং অন্যান্য উন্নয়ন প্রকল্প।

রাজ্য সরকার সূত্রে জানা গেছে, উওরাখণ্ডের শিশু অধিকার সংরক্ষণ কমিশেনর পক্ষ থেকে রাজ্যের মুখ্য়সচিবকে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। কমিশনের প্রধান উপদেষ্টা ঊষা নেগি জানিয়েছেন, রাজ্য বিধানসভা ভবনে মুখমন্ত্রীর জন্য সব রকমের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সৃষ্টি প্রায় দু’বছর ধরে বর্তমান সরকারের সঙ্গে কাজ করছেন। তাই সকলেই তার দক্ষতা সম্পর্কে অবগত। ফলে ভেবেচিন্তেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে উত্তরাখণ্ড সরকার।

উল্লখ্যে, হরিদ্বারের দৌলতপুর গ্রামের বাসিন্দা সৃষ্টি বর্তমানে কৃষি বিজ্ঞানের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। বাবা প্রবীণ গোস্বামী গ্রামেই একটি ছোট দোকান চালান। মা একজন অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী। এর আগেও সৃষ্টি শিশুকন্যা দিবসে বহু আন্তর্জাতিক স্তরের অনুষ্ঠানে যোগদান করেছেন।

২৪ ঘণ্টার জন্য এত বড় দায়িত্ব পেয়ে আপ্লুত সৃষ্টি। তার কথায়, ‘আমি এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না। অত্যন্ত অভিভূত। কথা দিচ্ছি, যথাসাধ্য চেষ্টা করব। আগামীদিনে যুব সমাজকে প্রশাসনিক কাজে দক্ষ করে তোলার প্রচেষ্টা নেব।’


আরো পড়ুন