শিরোনাম :

  • রাজধানীর উত্তরখানে আগুনে একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় তিতলিবাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনরায়কে ঘিরে ঢাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় আজ
শিশুকে যেসব খাবার দেবেন না
আমার বার্তা ডেস্ক :
১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১০:১২:২৩
প্রিন্টঅ-অ+


শিশুদের খাবারের তালিকা বড়দের খাবারের তালিকা থেকে অনেকটাই ভিন্ন হয়ে থাকে। কারণ শিশু বয়সটা একজন মানুষের সবদিক থেকে গড়ে ওঠার সময়। শিশুর শরীরে সঠিক পরিমাণ পুষ্টি সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। অনেকসময় শিশুর আবদারের কারণে বাইরের খাবার কিনে দেওয়া হয়। যা একেবারেই ঠিক নয়। কিছু খাবার রয়েছে যা কখনোই শিশুকে খেতে দেওয়া উচিত নয়।

শিশু খাবার কেমন হবে: রুটি এবং সবজি, ডাল ভাত, খিচুড়ির মতো খাবারে শরীরের সমস্ত প্রয়োজনীয়তা পূরণ করা সম্ভব। আমাদের সন্তানদের ক্রমবর্ধমান শারীরিক বিকাশ এবং মস্তিষ্কের দৈনন্দিন পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে এই খাবারগুলো। এই খাবার খেলে ঘুমও ভালো হয়। অনেকেই সপ্তাহের বেশিরভাগ রাতেই একই ধরণের খাবার দিয়ে থাকেন, শিশুদের কাছে তা একঘেয়ে মনে হয়। তাই শিশুর খাবার তালিকায় বৈচিত্র আনুন। এছাড়া মাঝে মাঝে রান্নায় স্বাস্থ্যকর ফ্যাট যেমন ঘি, যোগ করতে ভুলবেন না।

যা খেতে দেবেন না: প্রতিদিন আপনার শিশুকে নানা রকমের খাবার দেবেন না। বরং একেকদিন একেক রকম খাবার দিন।

শিশুদের জন্য বাড়িতে রান্না করা পুষ্টিকর খাবারই সবচেয়ে ভালো। আপনার সন্তানদের বাইরের খাবারে অভ্যস্ত করবেন না। এসব খাবারে শিশুর বিকাশের প্রয়োজনীয় পুষ্টি নেই এবং বাচ্চাদের ঘুমের সমস্যাও হতে পারে।

নুডলস, পাস্তা এবং হিমায়িত খাবার শিশুদের দেওয়া বন্ধ করুন। এই জাতীয় খাবারে কোনো পুষ্টি হয় না, বরং এসব খাবার অস্বাস্থ্যকর। এসব খাবারে চিনি এবং অন্যান্য সংরক্ষণ জাতীয় উপাদান রয়েছে যা শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

সপ্তাহে একবার আপনার সন্তানের জন্য রাতের খাবারে অন্যরকম কিছু তৈরি করুন। ছুটির দিনে খাবার মেন্যু অন্যরকম হতে পারে।

মাসে দুইবারের বেশি বাবা মায়েরা শিশুদের বাইরে হোটেলে খেতে নিয়ে যাবেন না। বাইরের খাবারে শিশুদের দৈনন্দিন পুষ্টির চাহিদা পূরণ হয় না।



আমার বার্তা/১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন