শিরোনাম :

  • সরকারের কাছে কবি নির্মলেন্দু গুণের আবেদন নিম্নবিত্তদের মাঝে মাস্ক বিতরণ ও বাজার তদারকি ভোক্তার বুড়িগঙ্গা-সদরঘাটের মাঝি-কুলি-দিনমজুরদের পাশে বিআইডব্লিউটিএ আমিরাতে নতুন ১০২ জন করোনায় আক্রান্ত, মোট ৫৭০
চুল সবচেয়ে সুন্দর রাখবে যেসব হেয়ারমাস্ক
আমার বার্তা ডেস্ক :
১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১১:৩৫:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+


চুলের নানা সমস্যা যখন প্রকট হয় আর নানা উপায় কাজে লাগিয়েও কোনো উপকার পাওয়া যায় না, তখন নিজের চুল নিজেরই ছিঁড়তে ইচ্ছে করে! বছরের অন্যান্য সময় যেমন-তেমন, শীত এলে তো চুলে আরও বেশি সমস্যা দেখা দেয়।

এই সময়ে চুল সবচেয়ে বেশি ঝলমলে ও সুন্দর রাখতে চাইলে ব্যবহার করতে হবে কিছু হেয়ারমাস্ক। তবে তা তৈরি করে নিতে পারবেন ঘরোয়া কিছু উপাদান দিয়েই। সেইসঙ্গে পান করতে হবে প্রচুর পানি এবং খেতে হবে পুষ্টিকর খাবার। কারণ ভেতর থেকে পুষ্টি না পৌঁছালে হেয়ারমাস্ক কাজ করবে না।

ডিম, তেল মধু: ডিমের কুসুম, মধু, আর দুই টেবিল চামচ আপনার পছন্দের তেল নিন। আমন্ড অয়েল, অলিভ অয়েল বা নারিকেলের তেলের যেকোনো একটি ব্যবহার করুন। ভালো করে ফেটিয়ে নিন। এর মধ্যেও কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মেশাতে পারেন। তার পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিতে হবে।

নারিকেল তেল, মধু, লেবুর রস: শীতের দিনে অনেকের স্ক্যাল্পেই প্রচুর খুশকি জন্মায়। চুল নরম রাখার পাশাপাশি তাকে খুশকিমুক্ত রাখতেও সাহায্য করবে এই বিশেষ মাস্কটি। তিনটিকে খুব ভালো করে মিশিয়ে মাথায় লাগান, এক ঘণ্টা অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার লাগানো বাধ্যতামূলক।

অ্যালোভেরা, মধু, নারিকেল তেল: দুই টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জুস, দুই টেবিলচামচ এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল আর এক চাচামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। তার পর চুলের আগা থেকে গোড়া ভালো করে মাখান। এক ঘণ্টা প্যাকটা চুলে বসতে দিন। তার পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন ভালো করে। তিন মিনিট পর কন্ডিশনার ধুয়ে নিন। কন্ডিশনার যেন মাথার তালু পর্যন্ত না পৌঁছায়, সেদিকে লক্ষ রাখবেন।

অ্যাভোকাডো, ডিম, তেল: পাকা অ্যাভোকাডোর শাঁস, ডিমের কুসুম, অলিভ অয়েল ভালো করে মিশিয়ে নিন। তার চুলে লাগিয়ে মাথায় শাওয়ার ক্যাপ পরে থাকুন ঘণ্টাখানেকের জন্য। আগে চুল ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর শ্যাম্পু করে নিন।

নারিকেলের দুধ: এককাপ নারিকেল কুরিয়ে আধাকাপ গরম পানতে ভিজিয়ে রাখুন দশ মিনিট। তারপর ব্লেন্ডারে ভালো করে পিষে ছেঁকে নিন। নারিকেলের গাঢ় দুধ আর মধু মিশিয়ে চুলে ভালো করে মাখিয়ে নিন। একটা তোয়ালে গরম পানিতে ভিজিয়ে নিয়ে মাথায় জড়িয়ে রাখুন। এক ঘণ্টা গরম পানির ভাপ চুলে বসার পর শ্যাম্পু করে নিন।

ডিম ও দই: আপনার চুল স্বাভাবিক হলে পুরো ডিম নিন। তেলতেলে হলে বাদ দেবেন কুসুম, রুক্ষ হলে সাদা ভাগ। এর মধ্যে দুই টেবিল চামচ পানি ঝরানো দই মিশিয়ে নিন। তীব্র গন্ধ বেরোবে, তাই এই প্যাকে দু’-এক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েলও মিশিয়ে নিতে পারেন। মাথায় লাগিয়ে আধাঘণ্টা রাখুন। তারপর শ্যাম্পু আর কন্ডিশনার ব্যবহার করে ধুয়ে নেবেন।



আমার বার্তা/১২ ডিসেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন