শিরোনাম :

  • এসএসসির ফল প্রকাশ আজ ‘ঐতিহাসিক’ যাত্রায় মহাকাশের পথে স্পেসএক্স-নাসার রকেট করোনার ‘নতুন কেন্দ্র’ লাতিন আমেরিকায় মৃত্যু ৫০ হাজার ছাড়াল আক্রান্ত সন্দেহে মাকে বাড়িতে ঢুকতে দিল না ছেলে
ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে যেসব ফল বেশি খাবেন
আমার বার্তা ডেস্ক :
০২ এপ্রিল, ২০২০ ১১:৩৬:১০
প্রিন্টঅ-অ+


গৃহবন্দি থাকতে গিয়ে আপনার নিত্যকার জীবনযাপনে এসেছে আমূল পরিবর্তন। স্বাভাবিকভাবেই বদলেছে খাদ্যাভ্যাসও। তাই বলে রুটিন না মেনে খাওয়া একদমই নয়। এই সময়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে হবে। এক্ষেত্রে কোনোভাবেই অবহেলা করা চলবে না। চিকিৎসকেরা বলছেন, এই সময় নানা ধরনের ফল খাওয়া প্রয়োজন। তাতে যেকোনো ভাইরাস নামক শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আমাদের শরীর অনেক বেশি প্রস্তুত থাকতে পারবে।

বিভিন্ন ধরনের ফলের মধ্যে চিকিৎসকেরা মূলত লেবুজাতীয় ফল খাওয়ার উপরেই বেশি গুরুত্ব দিতে চাইছেন। লেবুজাতীয় নানা ধরনের ফলে থাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি।

আমাদের শরীরকে শক্তপোক্ত ভাবে ধরে রাখা, কোষগুলোর মধ্যে যোগাযোগকে মসৃণ রাখার ব্যাপারে এক ধরনের প্রোটিনের খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। সেই প্রোটিনের নাম ‘কোলাজেন’। আমাদের শরীরই এই প্রোটিন তৈরি করে। ভিটামিন-সি সেই কোলাজেন তৈরির প্রক্রিয়ায় কার্যত অনুঘটকের কাজ করে।

প্রায় সব ধরনের লেবুজাতীয় ফলেই থাকে প্রচুর ভিটামিন-সি। পাতি লেবু, কাগজি লেবু, কমলা, বাতাবি লেবু, মাল্টায় থাকে প্রচুর ভিটামিন-সি।

এই সময় বাড়ির খাওয়াদাওয়া বা অফিসে যেতে হলে টিফিনেও বিভিন্ন ধরনের লেবুজাতীয় ফলের এখন খুব প্রয়োজন। তাতে আমাদের শরীরে কোলাজেন তৈরির কাজটা সহজ হবে।

লেবু জাতীয় ফলের পাশপাশি জরুরি হলো পেয়ারা খাওয়া। পেয়ারায় থাকে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন। আপেল খাওয়াও জরুরি। আর প্রয়োজন বেদানা। লোহার সঙ্গে নানা ধরনের প্রয়োজনীয় ভিটামিন প্রচুর থাকে এই ফলগুলোতে।

যেকোনো ধরনের ভিটামিন সব সময়েই আমাদের শরীরের পক্ষে উপকারী। করোনা সংক্রমণের কারণে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তাতে শরীরের প্রতিরোধী ব্যবস্থাকে শক্তিশালী ও সক্রিয় রাখার প্রয়োজন আরও বেড়ে গেছে। তাই নানা ধরনের ফল এখন নিয়মিতভাবে খাওয়া প্রয়োজন।



আমার বার্তা/০২ এপ্রিল ২০২০/জহির


আরো পড়ুন