শিরোনাম :

  • আজ শুভ জন্মাষ্টমী আজ দেশের ১২ অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস আজ রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না বার্মিংহামে প্লাস্টিক ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড
মাঝরাতে আপনার ঘুম ভেঙে যাওয়ার কারণ!
আমার বার্তা ডেস্ক:
২৯ জুলাই, ২০২০ ১৫:৫৬:৩৪
প্রিন্টঅ-অ+


সারাদিনের ক্লান্তি ও দুশ্চিন্তার পর রাতে যখন আরামের জন্য ঘুমাতে যাওয়া হয়। তাই দিন শেষে এই চোখ দুটি বিশ্রাম চাইবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সেই বিশ্রামেও মাঝে মাঝে ঘটে চরম ব্যাঘাত। অনেকেরই রাতে ঘন ঘন ঘুম ভেঙ্গে যায়, যার প্রভাব শুধু চোখের উপরই নয়, শরীর ও মন উভয়ের উপর পড়ে। রাতে একটু পর পর ঘুম ভেঙ্গে গেলে সারা রাত যেমন অস্থিরতায় কাটে; দিনও ভাল যায় না। দেখে নিন কী কী কারণে ঘুমের এমন সমস্যা হতে পারে।

ত্বক জ্বালাপোড়া ও চুলকানি : একজিমার মতো ত্বকের সমস্যাগুলো ঘুমের ব্যঘাত ঘটাতে পারে। একজিমার ফলে ইমিউন সিস্টেমে পরিবর্তন আসে এবং ইনফ্ল্যামেশনের কারণে রোগীর ঘুম ঠিকমতো হয় না। একজিমার রোগীদের চুলকানি সন্ধ্যা থেকে বাড়তে থাকে। ফলে তারা সহজে ঘুমাতে পারেন না এবং ঘন ঘন ঘুম থেকে জেগে ওঠেন। এমন সমস্যা আপনারও হয়ে থাকলে ডাক্তারের সাথে কথা বলে সমাধানের ব্যাপারে জেনে নিন।

রেস্টলেস লেগ সিনড্রোম : এটা মূলত প্রতি দশজন আমেরিকানের মাঝে একজনের হয় থাকে। তবে আপনিও হয়তো এই অভিজ্ঞতা পেয়েছেন। অনেক সময়ে ঘুমের মাঝে পা নাড়ানোর ঝোঁক হতে পারে। পা নিজের অজান্তেই নাড়ানোর কারণে ঘুম ভেঙ্গে যেতে পারে। আপনি যদি অ্যান্টিহিস্টামিন জাতীয় ওষুধ গ্রহণ করে তাহলে এই সমস্যা আরও প্রকট হতে পারে।

উষ্ণ ঘর : রুম টেম্পারেচারের সাথে ঘুমের মানের বড় সম্পর্ক আছে। ঘুম হবার জন্য ঘরের তাপমাত্রা কম হওয়া জরুরী। বেশি গরম ঘরে ঘুম আসতে দেরি হবে এবং ভালো ঘুম হবার সম্ভাবনা কম। ঘুম ভেঙ্গে যাবার সম্ভাবনাও বেশি। একেক মানুষের জন্য একেক টেম্পারেচার উপকারী তাই আপনি নিজেই এক্সপেরিমেন্ট করে দেখতে পারেন। তবে নিজের শরীরের চাইতে একটু কম তাপমাত্রাই ঘুমের জন্য ভালো।

শক্ত বিছানা : আমরা অনেকেই ভাবি শক্ত বিছানা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কিন্তু খুব বেশি শক্ত বিছানা আবার ঘুমের জন্য ভালো নয়। এগুলো আমাদের কোমর এবং কাঁধে চাপের সৃষ্টি করে এবং পিঠের নিচের দিকে ব্যথা তৈরি করতে পারে। ফলে আপনার শান্তির ঘুম হয় না। আপনার শরীরের জন্য আরামদায়ক, এমন একটি ম্যাট্রেস বেছে নিন।

আপনার স্লিপ অ্যাপনিয়া আছে অথচ আপনি জানেন না : স্লিপ অ্যাপনিয়া সমস্যার কারণে অনেকেই ঘুমাতে পারেন না। আপনারও হয়তো এই সমস্যাটি আছে অথচ আপনি জানেন না। এই সমস্যার পাশাপাশি থাকতে পারে জোরে জোরে নাক ডাকা, নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসা। এই সমস্যা থেকে আপনার মস্তিষ্ক আপনাকে জাগিয়ে তোলে। আপনি বা আপনার শয্যাসঙ্গী যদি জানতে পারেন আপনার নাক ডাকা ও নিঃশ্বাসে সমস্যা হচ্ছে তবে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আপনি অনেক স্ট্রেসে আছেন : অনেকেই স্ট্রেসে থাকার কারণে ঘুমাতে পারেন না। ঘুমালেও তাদের ঘুম সহজেই ভেঙ্গে যেতে পারে স্ট্রেসের কারণে। এর জন্য দিনের বেলায় একটু করে ব্যায়াম করতে পারেন, ল্যাভেন্ডার অয়েলের সুগন্ধি রাখতে পারেন ঘরে। এই স্ট্রেস দূর করতে পারলে ঘুম আসবে সহজে।



এভাবে ঘুম ভেঙ্গে গেলে আপনি কিছু কাজ করতে পারেন

শুয়ে থেকেও যদি ঘুম না আসে, তাহলে একটু হাঁটাচলা করুন, স্ট্রেচ করতে পারেন। নিজেকে রিল্যাক্স করুন, এরপর আবার বিছানায় যান

ফোন বা ট্যাবলেট বেডরুম থেকে বের করে দিন

পোষা প্রাণীকে বেডরুমে রাখবেন না



আমার বার্তা/ ২৯ জুলাই,২০২০/এসএফসি

 


আরো পড়ুন