শিরোনাম :

  • প্রধানমন্ত্রী রাতে দেশে ফিরবেন পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান হচ্ছে আজ যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ালমার্টের বাইরে গোলাগুলিতে নিহত ৩ আজ বিমানে পেঁয়াজ আসছে ইডেনে যে বিষয়টাতে বেশি ভয় পাচ্ছেন মিরাজ
১ দশক পর ভারত-রাশিয়ায় পেশাদার কূটনীতিক পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ
নিজস্ব প্রতিবেদক :
০৫ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৪৪:৪০
প্রিন্টঅ-অ+


প্রায় এক দশক পর ভারত ও রাশিয়ায় পেশাদার কূটনীতিক নিয়োগ দিতে যাচ্ছে সরকার। প্রায় ১০ বছর পর মস্কোতে বর্তমান রাষ্ট্রদূত ড. এস এম সাইফুল হককে সরিয়ে আনা হচ্ছে। তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (দ্বিপক্ষীয় বিষয়াবলি ও কনস্যুলার) কামরুল আহসান। পাশাপাশি প্রতিবেশি দেশ ভারতেও নতুন হাইকমিশনার নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরানকে ভারতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পেশায় ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামই প্রথম ব্যক্তি যিনি দীর্ঘ সময় রাশিয়ায় রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করলেন। কূটনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত না হয়েও ২০০৯ সালের সেপ্টেম্বরে মস্কোতে রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পান তিনি। নিয়োগ পাওয়ার আগে থেকেই তিনি দীর্ঘদিন ধরে রাশিয়ায় বসবাস করছিলেন। সেখানে ব্যবসা করতেন সাইফুল হক।

২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাশিয়ায় দ্বিপক্ষীয় সফরে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ও এক বিলিয়ন ডলারের সামরিক সমরাস্ত্র কেনার আর্থিক লেনদেনের চুক্তি সই হয়। যাতে রাষ্ট্রদূত হিসেবে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন তিনি।

গত ১০ বছরে চার দফা বাড়ানো হলেও গত জুনে মেয়াদ শেষ হলে তা আর না বাড়িয়ে তাকে ফেরত আসার আদেশ দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তার স্থলে কামরুল আহসানের নিয়োগের বিষয়টি প্রায় চূড়ান্ত।

এদিকে ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী। ২০১৪ সঙ্গে অবসরপ্রাপ্ত সাবেক এই পররাষ্ট্র সচিবকে চুক্তিভিক্তিক নিয়োগ দেয় সরকার। তিনি তারেক এ করিমের স্থলাভিষিক্ত হন। তাকেও চুক্তিতে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। ২০০৯ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত দিল্লিতে হাইকমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন তারিক এ করিম।

জানা যায়, ভারত ও রাশিয়ার পাশাপাশি আরও ১৩ দেশ এবং মিশনে রাষ্ট্রদূত পদে পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে সরকার। বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের সম্ভাব্য রাষ্ট্রদূতের নামের প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে অনুমোদন পাওয়ার পরে এ নিয়োগ চূড়ান্ত করবে সরকার।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তিনজন কর্মকর্তা প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন। বাকিরা বিভিন্ন দেশে রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সূত্র জানায়, ঢাকায় ফিরছেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন। তিনি পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন। বর্তমান পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হকের চুক্তির মেয়াদ ডিসেম্বরে শেষ হচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, নিউইয়র্কে মাসুদ বিন মোমেনের স্থলে পাঠানো হচ্ছে জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমাকে। আর জাপানে রাবাব ফাতিমার স্থলাভিষিক্ত হবেন নেদারল্যান্ডসে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মোহাম্মদ বেলাল। নেদারল্যান্ডসে যাচ্ছেন কুনমিংয়ে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মো. তৌহিদ ইসলাম। তিনি প্রথমবার রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পাচ্ছেন।

সূত্র জানায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূথ হিসেবে পাঠানো হচ্ছে অস্ট্রিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম আবু জাফরকে। তার স্থলে অস্ট্রিয়ায় রাষ্ট্রদূত পদে যোগ দেবেন ডেনমার্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবদুল মুহিত। নেপালে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামসকে পাঠানো হচ্ছে ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত করে।

এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাঠানো হচ্ছে তুরস্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আল্লামা সিদ্দিকীকে। দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাব্বির আহমেদ চৌধুরী ঢাকায় ফিরছেন। উজবেকিস্তানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মসউদ মান্নানকে পাঠানো হচ্ছে তুরস্কের রাষ্ট্রদূত হিসেবে। আর উজবেকিস্তানে রাষ্ট্রদূত পদে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন ঢাকায় ফরেন সার্ভিস একাডেমির অধ্যক্ষ সৈয়দ মাসুদ মাহমুদ খন্দকার।

পরিবর্তন আসছে বাহরাইনের রাষ্ট্রদূত পদেও। সেখানে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন রিয়াদে বাংলাদেশের উপ-রাষ্ট্রদূত মো. নজরুল ইসলাম। বর্তমানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতিসংঘ অনুবিভাগের মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করা নাহিদা সোবহান প্রথমবার রাষ্ট্রদূত হিসেবে যাচ্ছেন জর্ডানে।

এছাড়া গ্রিসে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসিম উদ্দিনকে কাতারে এবং কাতার থেকে আশহুদ আহমেদকে গ্রিসে বদলি করা হয়েছে।



আমার বার্তা/০৫ নভেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন