শিরোনাম :

  • দেশের ১১ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা আগামী সপ্তাহে ভারতে ভেন্টিলেটর পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র বিকেলে ১১০ কিমি বেগে মুম্বাইয়ে আঘাত হানবে ‘নিসর্গ’ ভারতে করোনায় আক্রান্ত ২ লাখ ছাড়াল
নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু
নিজস্ব প্রতিবেদক :
২৮ মার্চ, ২০২০ ১৪:৩৪:০৯
প্রিন্টঅ-অ+


করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে পরামর্শ দিয়েছে সরকার। এর জন্য ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতসহ যানচলাচলও বন্ধ করা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও। এ সময়ে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে চায় সরকার।

এ জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন এলাকায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ ও গ্রাহকদের সেবা দিতে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু করেছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ পেতে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে তথা ০২-৯৫৫৩১০০, ০১৮১৯২২৮৬১৬ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া কেন্দ্রীয় অভিযোগ ও গ্রাহক সেবা কেন্দ্রের- ০২-৪৭১২০২২৪, ০২-৪৭১২০২২৫, ০১৭০৮১৪৯৫০২, ০১৭০৮১৪৯৫০৩ নম্বরেও যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এর আগে, গত ২২ মার্চ একই কারণে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসের বিদ্যুৎ বিলের সারচার্জ বা বিলম্ব মাশুল না আদায়ে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যানে নিকট পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ কতে বলেছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়, বিদ্যুৎ বিভাগের আওতাধীন বিদ্যুৎ বিতরণকারী সংস্থা/কোম্পানিসমূহ গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে থাকে। গ্রাহকগণ বিভিন্ন ব্যাংক এবং মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সরবরাহকৃত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে থাকেন।

বর্তমানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে অনেক গ্রাহকই জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা-বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না। এর পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসে অনেক গ্রাহকই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারবেন না মর্মে প্রতীয়মান হচ্ছে।

উপযুক্ত অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে সারচার্জ বা বিলম্ব মাশুল ব্যতিরেকে পরিশোধের জন্য বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হলো।



আমার বার্তা/২৮ মার্চ ২০২০/জহির


আরো পড়ুন