শিরোনাম :

  • অর্ধলক্ষ ছাড়াল ডেঙ্গু রোগী বঙ্গবন্ধুকে বিশ্ব বন্ধু আখ্যা আজ থেকে ফিরতি হজ ফ্লাইট হজ পালন শেষে মারা গেলেন রোকেয়া বেগম মেসিকে ছাড়া খেলতে নেমে বার্সার পরাজয়
স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও দুই মেয়রের পদত্যাগ দাবি বিএনপির
নিজস্ব প্রতিবেদক :
৩০ জুলাই, ২০১৯ ১০:৫১:০৭
প্রিন্টঅ-অ+


ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় ব্যর্থতার অভিযোগ তুলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের দুই মেয়রের পদত্যাগ দাবি করেছে বিএনপি। সোমবার রাতে গুলশানে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ দাবি জানান মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘সরকার ডেঙ্গু সংকটকে লেজেগোবরে করে ফেলেছে। একদিকে সিটি কর্পোরেশন তাদের কথা বলছে মেয়ররা, যে কথার সাথে বাস্তবতার মিল নেই। কখনও তারা গুজব বলে উড়িয়ে দিচ্ছে, কখনও বলছে তারা যথাসাধ্য চেষ্টা করছে। এখানে আমাদের পর্যবেক্ষণ- সিটি কর্পোরেশন মশা নিধনে সম্পূর্ণ ব্যর্থ।’

ফখরুল বলেন, ‘ডেঙ্গু এত মহামারি আকার ধারণ করেছে যেটা সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। আমরা বলতে চাই, দুই মেয়র শুধু কথাই বলছেন, কোনো কাজ করছেন না। তারা সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছেন মশা নিধন করতে। দায় নিয়ে তাদের পদত্যাগ করা উচিত এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী যিনি পরবর্তী বিষয়গুলো মনিটরিং করতে ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি কার্যকরী কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেননি সে জন্য আমরা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছি।’

বন্যা পরিস্থিতির কারণে বিএনপির বিভাগীয় কর্মসূচি স্থগিত রয়েছে জানিয়ে ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আমরা বিভাগীয় যে সমাবেশ শুরু করেছি বাকি সমাবেশগুলো বন্যা পরিস্থিতির কারণে স্থগিত রেখেছি। আমাদের ত্রাণতৎপরতা শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে রংপুর, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল এবং জামালপুরে আমাদের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের নেতৃত্বে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। আমাদের এই ত্রাণকার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা দেখছি বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কৃষকরা। আমরা সরকারের কাছে অত্যন্ত জোরের সঙ্গে দাবি করছি- কৃষকদের জন্য বন্যাপরবর্তী কৃষি পুনর্বাসন কর্মসূচি গ্রহণ করতে হবে। কৃষকদের বীজ ও অন্যান্য উপকরণ বিনামূল্যে সরবরাহ করতে হবে এবং ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা যে কৃষিঋণ নিয়েছে তা সম্পূর্ণভাবে মওকুফ করতে হবে।’

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘দুঃখজনক ব্যাপার হচ্ছে সরকার সবকিছুর মধ্যে বিএনপি ভূত দেখে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় হচ্ছে গুজবের ফ্যাক্টরি। আমরা এটার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং এসব বক্তব্য থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।’

শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারির মাধ্যমে ক্ষমতাসীনরা বিদেশে অর্থপাচার করছে অভিযোগ করে ফখরুল বলেন, ‘শেয়ারবাজারে ২৭ হাজার কোটি টাকা উধাও হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগ সরকার আসার পর থেকে শেয়াবাজারে ধস শুরু হয়েছে। শেয়ারবাজারে লুটের মাধ্যমে সরকারের বড় বড় লোকেরা বিদেশে টাকা পাচার করছে।’

ইভিএম ব্যবহারের বিরোধিতা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা দেখতে পাচ্ছি ইভিএম ব্যবহার করার জন্য নির্বাচন কমিশন সক্রিয় হয়ে উঠেছে। আমরা খুব স্পষ্ট বলতে চাই, এই ইভিএম সম্পর্কে আমদের অতীতের যে অবস্থান ছিল এখন সেই অবস্থানে আছি। আমরা এই পদ্ধতিতে নির্বাচনকে আমরা কোনোমতেই সমর্থন করি না। আমরা মনে করি এই ইভিএম পদ্ধতির মাধ্যমে জনগণের রায়ের সঠিক প্রতিফলন ঘটবে না। এখানে জনগণের রায় ঘুরিয়ে দেয়ার সুযোগ রয়েছে। তাই এটাকে আমরা বাতিল করার কথা বলছি।’

এছাড়াও রংপুর-৩ আসনে উপ-নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জানিয়ে বিএনপি মুখপাত্র বলেন, এ ব্যাপারে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা দায়িত্ব দিয়েছেন। তিনি এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন।



আমার বার্তা/৩০ জুলাই ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন