শিরোনাম :

  • দুবাই শাসকের সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক আরব আমিরাতের আরও বড় বিনিয়োগ প্রত্যাশা প্রধানমন্ত্রীর ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সহজে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আফগানিস্তানের রোনালদোর গোলে ইউরোর মূলপর্বে পর্তুগাল গ্রিজম্যান ঝলকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইউরোর মূলপর্বে ফ্রান্স
চুনোপুঁটি ধরতে গিয়েই জনতার আদালতে সরকার : সেলিমা রহমান
নিজস্ব প্রতিবেদক :
০২ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৫৪:২১
প্রিন্টঅ-অ+


চুনোপুঁটি ধরতে গিয়ে সরকার এখন জনতার আদালতে পৌঁছে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ জানে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের লোকদের ধরা হচ্ছে না। তারা এসব চুনোপুঁটি ধরে বিএনপিকে আক্রমণ করার আরেকটি নতুন ইস্যু খুঁজছে।

শনিবার (২ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম’ এর উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সেলিমা বলেন, চুনোপুঁটি ধরতে গিয়ে সরকার এখন জনতার আদালতে পৌঁছে গেছে। কারণ সাধারণ মানুষ জানে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের লোকদের ধরা হচ্ছে না। চুনোপুঁটি ধরে বিএনপিকে আক্রমণ করার আরেকটি নতুন ইস্যু খুঁজছে। যেটা আজ ওবায়দুল কাদের বলেছেন! বিএনপিকে ধরা হচ্ছে না বলে তারা আইওয়াশ বলছে। আমরাও আইওয়াশ বলছি এ কারণে আজকে সাগর-রুনির হত্যার বিচার হয়নি, তনু হত্যার বিচার হয়নি, বিশ্বজিৎ হত্যাকারীদের রাষ্ট্রপতি সাধারণ ক্ষমা করেছেন। আজকে আবরার হত্যার কী হবে জানি না। একের পর এক হত্যা চলছে কিন্তু কোনো বিচার হচ্ছে না, বিচার বলতে কিছু নেই। অর্থাৎ বিচারব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধ্বংস।

তিনি বলেন, আজকে আমরা একটা ফ্যাসিস্ট অবৈধ সরকারের অধীনে আছি। যারা রাতের অন্ধকারে ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় এসেছে। তারা তাদের অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য এমন কোনো অপকর্ম নাই যা করছে না।

সেলিমা বলেন, আপনারা লক্ষ্য করে দেখবেন এক এক করে যদি আমরা এই দশ বছরের ইতিহাস তুলে ধরি শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারি-ব্যাংক লুট থেকে শুরু করে, দুর্নীতি, নারী হত্যা, ধর্ষণ, শিশু হত্যায় সমগ্র বাংলাদেশ অন্ধকারের দিকে ক্রমশ ধাবিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের নেতাকর্মীরা আজকে আদালতের দরজায় দরজায় ঘুড়ে বেড়ায়। আর তারা (আওয়ামী লীগ) বড় বড় কথা বলে, গণতন্ত্রের কথা বলে, উন্নয়নের কথা বলে রোল মডেল হিসেবে দেখে, বিশ্বের কাছ থেকে অ্যাওয়ার্ড নিয়ে আসে এই সমস্ত অ্যাওয়ার্ড বাংলাদেশ চায় না। মানুষ চায় স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ যার জন্য ত্রিশ লক্ষ শহীদ হয়েছেন।

সেলিমা বলেন, একজন মেজরের ডাকে যদি এদেশের লক্ষ কোটি জনতা রণাঙ্গনে যুদ্ধ করে দেশকে স্বাধীন করতে পারে তাহলে আমরা এতগুলো জিয়ার সৈনিক তাদের ডাকে কেন মানুষ রাজপথে নামবে না। অবশ্যই মানুষ রাজপথে নামবে এবং আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আনবে ইনশাল্লাহ।

আলোচনা সভায় নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমউদ্দিন আলম, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, ওলামা দলের আহ্বায়ক প্রিন্সিপাল শাহ মোহাম্মদ নেসারুল হক, নির্বাহী কমিটির সদস্য বিলকিস ইসলাম, জাতীয় গণতান্ত্রিক মঞ্চের সভাপতি ইসমাইল তালুকদার খোকন, ডেমোক্রেটিক কাউন্সিলের সভাপতি এমএ হালিম এবং কোতোয়ালি থানা কৃষক দল সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোজাম্মেল হোসেন হৃদয় প্রমুখ।



আমার বার্তা/০২ নভেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন