শিরোনাম :

  • অরুণ জেটলি বিরল এক ক্যানসারে ভুগছিলেন কোথায় গিয়ে থামবে আজ নিউজিল্যান্ড! শিশু সায়মা হত্যা : তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ১৬ সেপ্টেম্বরওএসডি হচ্ছেন জামালপুরের সেই ডিসি দ্বিতীয় ম্যাচেই হোঁচট খেলো রিয়াল মাদ্রিদ
‘আমিই এখন সম্ভবত নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃণিত বাবা’
স্পোর্টস ডেস্ক :
১৬ জুলাই, ২০১৯ ১৩:২৮:০২
প্রিন্টঅ-অ+


অনেক আশা নিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলতে নেমেছিল নিউজিল্যান্ড; কিন্তু সে সব আশা মাটি করে দিল তাদেরই রক্তের ছেলে। নাম তার বেন স্টোকস। তার অপরাজিত ৮৪ রানের উপর ভর করেই প্রথমবারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে ইংল্যান্ড।

এক প্রকার বলতে গেলে কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলল ইংলিশরা! জন্ম নিউজিল্যান্ডে হলেও ছোটবেলা থেকেই ইংল্যান্ডের ক্রিকেট খেলে বড় হয়েছেন বেন স্টোকস। ক্রিকেটার হওয়ার জন্য ইংল্যান্ডের নাগরিকত্বটাও; কিন্তু ইংল্যান্ডের হয়ে খেলে যে নিউজিল্যান্ডের স্বপ্ন ভেঙে দিবেন এই অলরাউন্ডার; তা হয়তো জানতেন না তার বাবা জেরার্ড স্টোকসও। তাই পুরো ব্যাপারটাই তার কাছে কাকতালীয় মনে হচ্ছে।

তবে এই বিষয়ে নিউজিল্যান্ডের জন্য লজ্জিত বোধ করছেন জেরার্ড। নিজেকে নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃনিত বাবা হিসেবে স্বীকৃতি দিচ্ছেন তিনি।

ফাইনাল ম্যাচ শেষে স্টোকসের বাবা বলেন, ‘আমিই সম্ভবত নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃণিত বাবা। এটাই এখন মানুষের মুখে মুখে বলাবলি হচ্ছে। সেটা যেভাবেই হোক। ব্ল্যাক ক্যাপসদের জন্য আমি সত্যিই খুব হতাশ। এটা সত্যিই খুব লজ্জার যে ট্রফি ছাড়াই একটা দলকে চলে যেতে হচ্ছে। বেন এবং তার দলের জন্য খুব আনন্দ হচ্ছে; কিন্তু আমি এখনো নিউজিল্যান্ডের সমর্থক।’

নিউজিল্যান্ড আর ইংল্যান্ডের মধ্যকার শ্বাসরূদ্ধকর এমন ম্যাচ দেখে শেষপর্যন্ত কান্নায় ভেঙে পড়েন বেন স্টোকসের মা। তার মতে, এই ম্যাচটিকে ড্র ঘোষণা করা উচিত ছিল। তিনি বলেন, ‘ম্যাচ শেষ হওয়ার পর আমি কান্নায় ভেঙে পড়ি। নিউজিল্যান্ডের জন্য সত্যিই খুব হতাশ আমি। কারণ তারা তাদের সেরাটুকু দিয়েছে। ম্যাচটা ড্র হলে খুব ভালো হতো।’



আমার বার্তা/১৬ জুলাই ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন