শিরোনাম :

  • ডি মারিয়া উড়িয়ে দিলেন রিয়ালকে তিন সপ্তাহ পরিকল্পনা, অতঃপর অভিযানের গ্রিন সিগন্যাল কোহলির ব্যাটে সহজ জয় ভারতের বিএনপি নেতা শামসুজ্জামান দুদুর বাড়িতে হামলা জাবি উপাচার্যকে পদত্যাগের জন্য আল্টেমেটাম
আমলাকে যে অবদানের জন্য ভুলবে না ভক্তরা
স্পোর্টস ডেস্ক :
১০ আগস্ট, ২০১৯ ১৪:১৪:৩৮
প্রিন্টঅ-অ+


বলা নেই, কওয়া নেই, হঠাৎ করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান হাশিম আমলা। নির্দিষ্ট কোনো ফরম্যাট নয়, ক্রিকেটকেই পুরোপুরি বিদায় বলে দিলেন তিনি। হাশিম আমলার এই অকালে ক্রিকেটকে বিদায় বলে দেয়াতেই অবাক সবাই।

বয়স ৩৬ পার হলেও সবাই ধরে নিয়েছিল, আরও কিছুদিন খেলে যাবেন হাশিম আমলা। কিন্তু সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপে খুবই বাজে পারফরম্যান্স করেছেন তিনি। হাশিম আমলার কাছ থেকে এতটা বাজে পারফরম্যান্স কেউ আশা করেনি। হয়তো নিজেও প্রত্যাশা করেননি, এতটা খারাপ হবে। যে কারণে ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন তিনি।

খুব বেশি মারকুটে ছিলেন না তিনি। ভারতীয় ব্যাটসম্যান রাহুল দ্রাবিড়ের মেজাজের সঙ্গেই কেবল তুলনা চলে প্রোটিয়া তারকা হাশিম আমলার। ধীরে সুস্থে বলের মেরিট অনুযায়ী খুঁটে-খুঁটে রান করা এবং ব্যাকরণসম্মত ব্যাটিংয়ে সুযোগ মতো বাউন্ডারি আদায় করে নেওয়া, এই ছিল দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে হাশিম আমলার মূল মন্ত্র।

ধ্রুপদী ক্রিকেটের যথার্থ ধারক ও বাহক ছিলেন হাশিম আমলা। বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তিনি অবসর নেওয়ার শেষ হয়ে গেল ঠান্ডা মাথার খুনে ব্যাটিংয়ের সেই অধ্যায়।

হাশিম আমলা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নেয়ার পর রেখে গেলেন এমন সব মাইলফলক, যেগুলো প্রোটিয়া ক্রিকেটে প্রথমবার পার করেছিলেন কোনো ব্যাটসম্যান। একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ কিছু স্মরণীয় রেকর্ডও সঙ্গে নিয়েই নতুনদের জন্য জায়গা ছেড়ে দিলেন আমলা।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক হাশিম আমলার তেমনই কিছু রেকর্ড।

** ১৫ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১২৪ টেস্ট, ১৮১ ওয়ান ডে এবং ৪৪টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন আমলা। টেস্টে ৪৬.৬৪ গড়ে ৯২৮২ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। সেঞ্চুরি করেছেন ২৮টি। হাফ সেঞ্চুরি ৪১টি। ওয়ানডে ক্রিকেটে ১৮১ ম্যাচে ৪৯.৪৬ গড়ে ৮১১৩ রান সংগ্রহ করেছেন আমলা। সেঞ্চুরি করেছেন ২৭টি। হাফসেঞ্চুরি ৩৯টি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে ৪৪ ম্যাচে ৩৩.৬০ গড়ে ১২৭৭ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। হাফ সেঞ্চুরি করেছেন ৮টি।

** দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ও একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে ট্রিপল সেঞ্চুরির রেকর্ড রয়েছে আমলার। ২০১২ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩১১ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।

** ২০১৭ সালে কুইন্টন ডি’কককে সঙ্গে নিয়ে আমলার ২৮২ রানের জুটি দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে এখনও পর্যন্ত ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ।

** বিশ্বের দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ২০০০, ৩০০০, ৪০০০, ৫০০০, ৬০০০ ও ৭০০০ রানের মাইলফলসক স্পর্শ করেন আমলা।

** ওয়ানডে ক্রিকেটে আমলার ২৭টি সেঞ্চুরি এখনও পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সর্বোচ্চ। টেস্টে সেঞ্চুরি করেছেন ২৮টি। যা দক্ষিণ আফ্রিকা হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান হিসেবে আমলার চেয়ে বেশি টেস্ট সেঞ্চুরি (৪৫টি) এবং রান (১৩২৮৯) রয়েছে শুধু জ্যাক কালিসের।

** আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোট ৫০টি সেঞ্চুরি করা যৌথ দ্রুততম ব্যাটসম্যান হলেন আমলা। তিনি মোট ৩৪৮টি ইনিংসে ৫০টি সেঞ্চুরির মাইলফলক স্পর্শ করেন। এ নিরিখে তিনি টপকে গেলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকারের রেকর্ড। শচিন ৩৭৬ ইনিংসে ৫০টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি করেছিলেন। এ ক্ষেত্রে প্রোটিয়া তারকা ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে যৌথভাবে রেকর্ডের অধিকারী।

** ২০১৫ বিশ্বকাপে ফ্যাফ ডু’প্লেসির সঙ্গে আমলার ২৪৭ রানের জুটি, বিশ্বকাপের আসরে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সর্বোচ্চ।

** শচিন টেন্ডুলকার, রিকি পন্টিং, কুমার সাঙ্গাকারা এবং বিরাট কোহলির সঙ্গে উচ্চারিত হবে হাশিম আমলার নামও। যাদের নামের পাশে রয়েছে ওয়ানডে এবং টেস্ট- এই দুই ফরম্যাটেই আলাদা আলাদাভাবে ২৫টির বেশি সেঞ্চুরি।

** এবি ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে হাশিম আমলা হচ্ছেন একমাত্র প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান, যাদের নামের পাশে টেস্ট এবং ওয়ানডে দুই ফরম্যাটেই ৪৫ প্লাস গড় এবং ৮ হাজার প্লাস রান লেখা রয়েছে।



আমার বার্তা/১০ আগস্ট ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন