শিরোনাম :

  • ঢামেক হাসপাতালে নবজাতক রেখে নিখোঁজ বাবা-মা নেতাকর্মীদের কাছে পাত্তাই পেলেন না শোভন অস্ট্রেলিয়ার সামনে রানের পাহাড় দাঁড় করাচ্ছে ইংল্যান্ড সৌম্য-লিটনও পারে, প্রয়োজন শুধু বিশ্বাস : ব্যাটিং কোচ পাকিস্তান সিপিএল থেকে নিজেদের বোলারকে ফিরিয়ে নিল
মাথায় আঘাত পাওয়া ম্যাচে আইসিসির সুসংবাদ পেলেন স্মিথ
স্পোর্টস ডেস্ক :
১৯ আগস্ট, ২০১৯ ১৮:০০:০২
প্রিন্টঅ-অ+


তখন অপরাজিত ছিলেন ৮০ রানে। এজবাস্টনে সিরিজের প্রথম ম্যাচের দুই ইনিংসেই যেমন হাঁকিয়েছিলেন সেঞ্চুরি, তেমনি করে লর্ডসেও স্টিভেন স্মিথের ব্যাট থেকে আরেকটি শতরানের অপেক্ষায় ছিলো কোটি ক্রিকেটভক্ত। যেভাবে ব্যাটিং করছিলেন স্মিথ, তাতে সেঞ্চুরি তখন ছিলো দৃষ্টির সীমানায়।

কিন্তু বিধিবাম! ক্যারিবীয় বংশোদ্ভূত ইংলিশ পেসার জোফরা আর্চারের শরীর বরাবর তাক করা বাউন্সারে চার মেরে সে ওভারটি শুরু করেছিলেন স্মিথ। কিন্তু জাদরেল পেসার আর্চারের তা সহ্য হওয়ার ছিলো না। তাই পরের বলে করেন শরীর বরাবর আরও এক বাউন্সার, এবার গতি বাড়িয়ে!

প্রথম বলে বাউন্সারের জবাবে চার মারলেও, ওভারের দ্বিতীয় বলটিতে আর পারেননি স্মিথ। প্রায় ৯৬ মাইল গতির বলটি সোজা গিয়ে আঘাত হানে স্মিথের ঘাড়ে, সঙ্গে সঙ্গে লুটিয়ে পড়েন মাটিতে। খানিকপরেই উঠে দাঁড়ালেও ফিজিও তাকে আর ব্যাটিং করার অনুমতি দেয়নি। ফলে ৮০ রানে অপরাজিত থেকেই চলে যেতে হয় ড্রেসিংরুমে।

তবে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে সে ইনিংসে আবারও ব্যাটিং করতে নেমেছিলেন স্মিথ। কিন্তু পারেননি চলতি সিরিজে তৃতীয় ইনিংসে নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরি করতে। অস্বস্তি নিয়ে ব্যাটিং করতে করতে ক্রিস ওকসের পাতা লেগ বিফোরের ফাঁদে ধরা পড়েন ব্যক্তিগত ৯২ রানের মাথায়। ক্যারিয়ারে মাত্র তৃতীয়বার নব্বইয়ের ঘরে এবং নবমবারের মতো পেস লেগ বিফোর আউট হন স্মিথ।

সেঞ্চুরি না পেলেও, ম্যাচ শেষে আইসিসির কাছ থেকে সুসংবাদ পেয়েছেন স্মিথ। টেস্ট ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ে নিজের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার মিশনে বড়সড় এক লাফই দিয়েছেন তিনি।

লর্ডস টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯২ রানের ইনিংস খেলার সুবাদে ৫৬ রেটিং পয়েন্ট পেয়েছেন স্মিথ। যার সুবাদে ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। বর্তমানে তার রেটিং পয়েন্ট ৯১৩। তিনি পেছনে ফেলেছেন ৮৮৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থাকা নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে।

স্মিথের সামনে এখন রয়েছেন কেবল ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তার নামের পাশে রয়েছে ৯২২ রেটিং পয়েন্ট। আগামী ২২ আগস্ট লিডস টেস্টেই কোহলিকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকছে স্মিথের সামনে। তবে তার আগে মাথায় পাওয়া আঘাতে ফিজিওর ছাড়পত্র পেতে হবে বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যানকে।

উল্লেখ্য, গতবছরের মার্চে বল টেম্পারিং কাণ্ডে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার আগে ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯৪৭ রেটিং পয়েন্ট অর্জন করেছিলেন স্মিথ। তখন মাত্র ১৫ পয়েন্ট হলেই ডন ব্র্যাডম্যানের গড়া ইতিহাসের সর্বোচ্চ ৯৬১ রেটিংয়ের রেকর্ডটি ভেঙে ফেলতে পারতেন তিনি।



আমার বার্তা/১৯ আগস্ট ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন